Home > খেলাধুলা > কাঁঠগড়ায় ‘ডবল সেঞ্চুরিয়ান’ সাকিব!

কাঁঠগড়ায় ‘ডবল সেঞ্চুরিয়ান’ সাকিব!

ওয়েলিংটন টেস্টে সাকিব আল হাসান দুজন কিংবদন্তি ক্রিকেটারের পাশে জায়গা করে নিয়েছেন। স্যার ভিভিয়ান রিচার্ডস ও রিকি পন্টিং। দুই ক্রিকেটারের সঙ্গে সাকিবের খুব মিল। তারা তিনজনই টেস্টের প্রথম ইনিংসে পেয়েছেন ডবল সেঞ্চুরির স্বাদ। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে মেরেছেন ডাক। ডাক মানে শূন্য। রানের খাতাই খুলতে পারেননি।

শুধু তারা তিনজনই নয় তাদের সঙ্গে এ তালিকায় আছেন পাকিস্তানের ইমতিয়াজ আহমেদ, শোয়েব মালিক ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের সেইমর নার্স। সাকিব আল হাসান নিশ্চিত এ রেকর্ড বুকে জায়গা পেতে চাননি। বাংলাদেশ দল হেরে যাক সেটাও হয়তো চাননি। বাংলাদেশকে অনেক জয়ের উপলক্ষ্য তৈরী করে দেওয়া সাকিব কখনোই চাননি ওয়েলিংটনে বাংলাদেশ মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়ুক।

কিন্তু সোমবারের সকালে শতকোটি ক্রিকেটপ্রেমিদের হতাশ করেন সাকিব। তার এক আত্মঘাতি শটে শেষ নিউজিল্যান্ডে বিপক্ষে ড্র কিংবা জয়ের স্বপ্ন! স্বপ্ন তো ভেঙে গেছে পাশাপাশি পরাজয়ের গ্লানি নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে টাইগারদের। ভুল প্রায় প্রতিটি খেলোয়াড়ই করেছে। কিন্তু সাকিবের ‘মস্ত বড় ভুল’ চোখে লেগেছে। সাকিবের দিকে ১৬ কোটি মানুষের ৩২ কোটি চোখ তাকিয়ে ছিল। কিন্তু ঘুম কাতর চোখ নিয়ে টিভি স্ক্রিনের সামনে বসতে না বসতেই প্যাভিলিয়নে বিশ্বের অন্যতম সেরা এ অলরাউন্ডার।

মুমিনুল হক ও সাব্বির রহমানের আউট অনেকটাই আত্মঘাতি। এমন কোনো আহামরি বল নিউজিল্যান্ডের পেসাররা করেননি যে উইকেট বিলিয়ে দিয়ে আসতে হবে। কিন্তু কাঁঠগড়ায় শুধুমাত্র সাকিবের ওই আউট। প্রশ্ন হচ্ছে ডবল সেঞ্চুরিয়ান কিংবা বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের দায়িত্বটা কোথায়? সাকিব জানতেন মুশফিকুর রহিম ও ইমরুল কায়েস ২২ গজের ক্রিজে অনায়েসে ব্যাটিংয়ের জন্য শতভাগ ফিট নন। তারপরও দিনের অষ্টম বলে মিচেল স্যান্টনারকে ‘ওই শট’! কিভাবে সম্ভব? সাকিব এবারই প্রথম এরকম করলে হয়ত এত কথা উঠত না কিংবা কষ্ট লাগত না।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের তৃতীয় দিনের সকালের কথা মনে আছে? দিনের দ্বিতীয় বলে স্পিনার মঈন আলীর বলে এগিয়ে এসে মারতে গিয়ে সাকিব হন স্ট্যাম্পড। পরবর্তীতে বাংলাদেশ কতোটা বিপর্যয়ে পড়েছিল সেটাও চোখের সামনে ভাসছে।

চট্টগ্রাম থেকে ওয়েলিংটন, দৃশ্যপট, চরিত্র, পরিবেশ কিছুই পাল্টায়নি। নায়ক সাকিব আবার ‘খলনায়ক’! সাজানো মঞ্চে একই চিত্রনাট্য রচনা করেছেন ডবল সেঞ্চুরিয়ান সাকিব আল হাসান। বড়দলগুলোকে মাটিতে নামিয়ে আনার সুযোগ একের পর এক পেয়ে যাচ্ছে পরাশক্তি হয়ে উঠা বাংলাদেশ। টাচলাইনেই সমস্যা। এটা কেটে গেলে সবগুলো গোলই দিতে পারবে বাংলাদেশ।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ