Home > খেলাধুলা > কঠিন চ্যালেঞ্জ সাদা পোশাকে: সাকিব আল হাসান

কঠিন চ্যালেঞ্জ সাদা পোশাকে: সাকিব আল হাসান

নিউজ ডেক্স:  ২০১১ সালের পর টেস্ট খেলতে বছর খানেক অপেক্ষা করতে হয়েছিলো বাংলাদেশকে। এবার বিরতিটা আরো বড়। গত বছরের জুলাইয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট খেলার ১৪ মাস পর সাদা পোশাকে খেলতে নামছে বাংলাদেশ। এমন লম্বা বিরতির পর আর যাই হোক টেস্ট খেলাটা যে কঠিন সেটা ভালো করেই জানেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা।

মঙ্গলবার অনুশীলনে নামার আগে অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানও তেমনই বললেন। তার মতে এতো লম্বা বিরতির পর টেস্ট খেলতে নামাটা সহজ কিছু নয়। অন্যদের ব্যাপারে না বললেও তার জন্য যে এটা কঠিন কাজ হতে যাচ্ছে তা স্বীকার করে নিলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার।

এমনকি শেষ কবে লঙ্গার ভার্সনের ম্যাচ খেলেছেন সেটাও নাকি মনে নেই সাকিবের। তাই সাকিব বলছেন, আমরা যেহেতু অনেকদিন টেস্ট ম্যাচ খেলি না। আর আমি তো লংগার ভার্সন কবে খেলেছি আমার মনে নেই। আমার জন্য কঠিন। দেখা যাক কি হয়, চেষ্টা করছি ওইরকম মাইন্ডসেট তৈরি করার।

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বরে জাতীয় ক্রিকেটে লিগে (এনসিএল) খুলনা বিভাগের হয়ে লঙ্গার ভার্সনের  শেষ ম্যাচটি খেলেছেন সাকিব আল হাসান। সময়ের কারণে এবার খেলার সুযোগ হয়নি। জাতীয় দলের হয়েও টেস্ট খেলায় লম্বা বিরতি। অনুশীলনের পাশাপাশি মানসিকভাবে ঠিক থাকার কথা বলছেন সাকিব, খুব বেশি প্রস্তুতির কিছু নেই। মানসিক দিক থেকে যতবেশি ঠিক থাকা যাবে, টেস্ট ম্যাচের জন্য ততো প্রস্তুত হওয়া যাবে।

এর আগেও টেস্ট খেলায় বিরতির মাঝে থেকেছে বাংলাদেশ। কিন্তু তখন জাতীয় লিগ খেলতেন সাকিব। এখন সেভাবে সুযোগ হয় না। এ নিয়ে সাকিব বলছেন, ওই সময় হয়তো জাতীয় লিগ খেলা হতো। এখনতো সেগুলো খেলা হয় না। ওয়ানডেই খেললাম আমরা এক বছর পর। ওটাও মানিয়ে নিতে প্রথম দুই-তিন ম্যাচ সময় লেগেছে। অনেকক্ষণ ধরে ব্যাটিং-বোলিং করা আসলে অন্যরকম। আমার কাছে মনে হয়ে অন্যরকম একটা চ্যালেঞ্জ।

এমন বিরতি পড়লে টেস্ট খেলার আগে নতুন নতুন মনেহয় কি না? বাঁহাতি এই অলরাউন্ডার বলছেন, ১০ বছর খেললাম এমন তিনবার হয়েছে। নতুন নতুন তো লাগেই। আমি যেটা বললাম অনেকদিন না খেললে একটা গ্যাপ তৈরি হয়। আশা করি প্রস্তুতিটা ভালোভাবে শেষ করতে পারবো। কাল আরও একটা দিন আছে। টেস্ট ম্যাচটা যেহেতু আল্টিমেট ক্রিকেট সবাই রোমাঞ্চিত।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ