Home > খেলাধুলা > ভুল শুধরে এবার লড়তে চায় বাংলাদেশ

ভুল শুধরে এবার লড়তে চায় বাংলাদেশ

ওয়ানডে সিরিজে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য মুখিয়ে আছি আমরা’-এভাবেই নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়ানোর কথা বলেছেন পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। একই কথা মোহাম্মদ মিথুনের গলায়ও; পুরো দলের চাওয়া একটাই ডানেডিনের ভুলগুলো শুধরে ক্রাইস্টচার্চে সেরা পারফরমেন্স দেখিয়ে লড়াইয়ে ফেরা।

ডানেডিনের বড় হারে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে এখন পিছিয়ে বাংলাদেশ। সিরিজে দ্বিতীয় ম্যাচ বাঁচা-মরার লড়াই। দু’বছর আগে সর্বশেষ নিউ জিল্যান্ড সফরে ক্রাইস্টচার্চ থেকে বাংলাশে পেয়েছিল নারকীয় অভিজ্ঞতা, ভয়াবহ সন্ত্রাসী ঘটনার কবল থেকে সৌভাগ্যক্রমে বেঁচে ফিরেছিল পুরো দল; সেই শহরে মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ সকালে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নামছে বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় ম্যাচটি শুরু হবে। ক্রাইস্টচার্চের হ্যাগলি ওভালের এই ম্যাচটি দিবারাত্রির। কিউই পরিবেশে এটাও হবে তামিমদের জন্য ভিন্ন এক অভিজ্ঞতা। প্রথম ওয়ানডেতে ব্যাটে-বলে ন্যূনতম লড়াইও করতে পারেনি বাংলাদেশ। ১৩১ রানে অলআউট। কিউইরা ম্যাচ জিতে যায় মাত্র ২১ ওভার ২ বলে। পুরোপুরি নো কম্পিটিশিন ম্যাচ আরকি!

দ্বিতীয় ম্যাচে এই ভুলগুলো আর করতে চায় না বাংলাদেশ। ক্রিকেটাররা দিতে চান নিজেদের সেরাটা। মোহাম্মদ মিথুন সেই প্রতিজ্ঞার কথাই জানাচ্ছিলেনÑ ‘এ ধরনের উইকেটে ভালো করতে হলে অবশ্যই ব্যাটসম্যানদের দায়িত্ব নিতে হবে। গত ম্যাচে খুবই বাজে ছিল। যওি কন্ডিশন আমাদের পক্ষে ছিল না। এর আগেও বলা হয়েছে যে আমরা এতো খারাপ ল না। ক্রাইস্টচার্চ নতুন ভেন্যু, নতুন আরেকটা ম্যাচ। অবশ্যই চাইবো, আগের ম্যাচের সবকিছু ভুলে গিয়ে সামনের ম্যাচে সেরাটা ওেয়ার। ব্যাটসম্যানদের আরেকটু দায়িত্বশীল হতে হবে। সবাইকে সেরাটা খেলতে হবে। নিউ জিল্যান্ডের উইকেটে সাধারণত হাই-স্কোরিং ম্যাচ হয়। অবশ্যই আমারে ২৬০-২৭০ না করলে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লড়াই করাটা কঠিন। উইকেট যেমনই হোক, সেটির সঙ্গে আমাদের খাপ খাইয়ে নিতে হবে। অন্তত আমাদের ম্যাচ জেতার জন্য যতটুকু করা দরকার এবং বোলাররা যাতে একটু নির্ভার থাকতে পারে অন্তত এমন একটা লক্ষ্য দিতে চাই।’

এই ম্যাচের একাদশে বদল নিয়ে নামতে পারে বাংলাদেশ। পেসার হাসান মাহমুদের পরিবর্তে সেরা একাদশে আসতে পারেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন বা রুবেল হোসেন। তিনে নেমে প্রথম ম্যাচে শূন্য রানে ফেরা সৌম্য সরকারের ওপর এই ম্যাচেও ভরসা রাখছে টিম ম্যানেজম্যান্ট।

কেমন হতে পারে দ্বিতীয় ম্যাচের পিচ? মিথুন জানালেন- ‘ক্রাইস্টাচার্চের উইকেটে অন্যান্য উইকেটের তুলনায় বাউন্সটা তুলনামূলক কম থাকে তবে পেস থাকে। পেস বেশি থাকলে ব্যাটসম্যানদের জন্য একটা সুবিধা যে বল ভালো ব্যাটে আসে। আমরা যদি নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারি এবং ইতিবাচক থাকি তাহলে ডানেডিনের পুনরাবৃত্তি হবে না।’

বাংলাদেশের জন্য বাঁচা-মরার লড়াই হলেও প্রথম ম্যাচে কতৃত্ব দেখিয়ে পাওয়া জয়ের স্বস্তি নিয়ে নামবে নিউ জিল্যান্ড। এই ম্যাচেই জয় নিয়ে সিরিজ নিশ্চিত করে নিতে চাইবে টম ল্যাথামের ল। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে এই ম্যাচেও খেলতে পারবেন না রস টেলর। ফিরলে বাংলাদেশের জন্য আরও চ্যালেঞ্জিং হয়ে যেতো। তারে দেখা যেতে পারে প্রথম ম্যাচের একাদশেই।

নিউ জিল্যান্ডেরর বোলিং কোচ গ্যারি স্টিড মনে করেন নিউ জিল্যান্ড প্রথম ম্যাচের ধারাবাহিকতা বজায় রাখবে। তবে তিনি প্রত্যাশা করছেন বাংলাদেশও ঘুরে দাঁড়াবে এই ম্যাচে। নিউ জিল্যান্ডের সামনে সিরিজ জয়ের মিশন আর বাংলাদেশের সামনে বাঁচানোর। শেষ পর্যন্ত কী হয় তা মঙ্গলবার বিকেলের আগেই জেনে যাবেন!

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী
শিরোনামঃ