Home > খেলাধুলা > ব্রাজিলকে রুখে দিল আর্জেন্টিনা

ব্রাজিলকে রুখে দিল আর্জেন্টিনা

মেসিবিহীন আর্জেন্টিনা দুর্দান্তভাবে রুখে দিল
নেইমারের ব্রাজিলকে। আর এর মাধ্যমেই
বিশ্বকাপের বাছাই পর্বের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র
হলো।
য়েনস আইরেসের মনুমেন্তাল স্টেডিয়ামে শনিবার
বাংলাদেশ সময় সকাল ছয়টায় শুরু হওয়া এই ম্যাচে
প্রথমার্ধের আধ ঘণ্টা একচেটিয়া নিয়ন্ত্রণ করার পর
আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেন এসেকিয়েল
লাভেস্সি। দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচে ফেরা ব্রাজিলকে
সমতায় ফেরান লুকাস লিমা।
ম্যাচের প্রথম থেকেই ব্রাজিলের অর্ধে
চেপে বসে স্বাগতিকরা; তবে গোলের পরিষ্কার
কোনো সুযোগ তৈরি হয়নি প্রথম আধ ঘণ্টায়। ডি-
বক্সের ভেতর ক্রসে ঠিকমতো ভলি নিতে
পারেননি পিএসজির তারকা মিডফিল্ডার আনহেল দি মারিয়া।
সেভিয়ার মিডফিল্ডার এভার বানেগার দূরপাল্লার শট যায়
ক্রসবার উঁচিয়ে। ব্রাজিল পাল্টা আক্রমণের সুযোগ
পেলেই কেবল উপরে উঠে আসতে পারে।
আক্রমণভাগের দুই তারকা লিওনেল মেসি ও সের্হিও
আগুয়েরোর চোটে সুযোগ পাওয়া গনসালো
হিগুয়াইন ও লাভেস্সি আর সঙ্গে বিপজ্জনক দি মারিয়া বার
বার ব্রাজিলের রক্ষণভাগের পরীক্ষা নেন। ৩৪তম
মিনিটে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে দেওয়া গোলে
ছোঁয়া ছিল এই তিন জনেরই।
দি মারিয়া বল বাড়িয়েছিলেন ডান দিকে হিগুয়াইনকে।
ডিফেন্ডারদের অবস্থান দেখে নিয়ে নাপোলির
এই ফরোয়ার্ড দারুণ ক্রস বাড়ান ডি-বক্সে, দৌড়ে
দিয়ে লক্ষ্যভেদ করেন লাভেস্সি। দেশের
হয়ে পিএজির এই ফরোয়ার্ডের এটি সপ্তম গোল।
৩৯তম মিনিটে ডিফেন্ডার মার্কোস রোহোর
ক্রস থেকে আরেক ডিফেন্ডার ফুনেস মোরির
হেড ব্রাজিলের পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে
যায়।
প্রথমার্ধে দেখা যায়নি বার্সেলোনার হয়ে দুর্দান্ত
ফর্মে থাকা নেইমারের জাদু। চার ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা
কাটিয়ে মাঠে নামা বার্সেলোনার এই তারকা
ফরোয়ার্ড একটু নিচে নেমে খেলে
সতীর্থদের বল যোগান দেওয়ার চেষ্টা করে
যান।
দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু হওয়ার পর ব্যবধান দ্বিগুণ
করার দারুণ একটি সুযোগ হারায় আর্জেন্টিনা।
ম্যানচেস্টার সিটির ডিফেন্ডার নিকোলাস ওতামেন্দির
পাস থেকে বানেগার প্রথম শট ঠেকিয়ে দেন
মিরান্দা, পরের শট গোলরক্ষক আলিসনকে ফাঁকি
দিলেও বল পোস্টে লেগে ফিরে আসে।
৫৪তম মিনিটে দূরপাল্লার শটে গোলরক্ষক সের্হিও
রোমেরোকে বিপদ ফেলতে পারেননি
ক্লাবের হয়ে দারুণ ফর্মে থাকা নেইমার।
অনুজ্জ্বল রিকার্দো অলিভেইরার বদলে দগলাস
কস্তাকে মাঠে নামান কোচ দুঙ্গা। নেমেই
ব্রাজিলকে সমতায় ফেরাতে অবদান রাখেন বায়ার্ন
মিউনিখের এই মিডফিল্ডার।
৫৮তম মিনিটে আলভেসের ক্রস থেকে কস্তার
জোরাল হেড ক্রসবারে লাগলেও ফিরতি বলে দারুণ
ভলিতে গোল করেন লুকাস লিমা। জাতীয় দলের
হয়ে সান্তোসের মিডফিল্ডারের এটাই প্রথম
গোল। ডাগ আউটে কোচ দুঙ্গার মুখে ম্যাচে
প্রথমবারের মতো তখন হাসি ফুটে।
গোলের পর ঘুরে দাঁড়ায় ব্রাজিল। আর্জেন্টিনার
আক্রমণের জবাবে আক্রমণে উঠে আসে
নেইমাররাও। ৭৪তম মিনিটে গোল লক্ষ্য করে
চেলসি মিডফিল্ডার উইলিয়ানের শট ঠেকান মোরি।
৭৮তম মিনিটে একটুর জন্য আত্মঘাতী গোল করে
বসেননি ফিলিপে লুইস। রোহোর ক্রসে একটুর
জন্য পা লাগাতে পারেননি হিগুয়াইন। বল লুইসের পায়ে
লেগে গোলের দিকে যাচ্ছিল; বিপদ হতে
দেননি গোলরক্ষক।
পরের মিনিটেই নেইমারের দূরপাল্লার শট কর্নারের
বিনিময়ে ঠেকান গোলরক্ষক। ৮০তম মিনিটে কস্তার
শটও আয়ত্মে নিতে সমস্যা হয়নি রোমেরোর।
ম্যাচের নির্ধারিত সময়ের এক মিনিট আগে দ্বিতীয়
হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়তে হয় ব্রাজিলের
ডিফেন্ডার দাভিদ লুইসকে। তবে যোগ করা চার
মিনিটে কোনো বিপদে পড়তে হয়নি অতিথিদের।
রাশিয়া ২০১৮ বিশ্বকাপের দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের
বাছাইপর্বে এখনও জয়ের মুখ দেখা হলো না
আর্জেন্টিনার। ঘরের মাঠে ইকুয়েডরের কাছে
২-০ গোলে হেরে বিশ্বকাপ বাছাই অভিযান শুরু করা
মার্তিনোর দল পরের ম্যাচে প্যারাগুয়ের সঙ্গে
গোলশূন্য ড্র করে।
আর চিলির কাছে প্রথম ম্যাচে ২-০ গোলে
হারলেও পরের ম্যাচে ভেনেজুয়েলাকে ৩-১
গোলে হারায় ব্রাজিল। এবার প্রবল প্রতিপক্ষের
মাঠে পিছিয়ে পড়েও এক পয়েন্ট নিয়ে ফিরতে
পারায় সন্তুষ্টই থাকার কথা দুঙ্গার।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ