Home > খেলাধুলা > লোকমানকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ

লোকমানকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ

অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ডিরেক্টর ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভূঁইয়াকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ‌্যা ৬টা পর্যন্ত দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সংস্থাটির পরিচালক সৈয়দ ইকবালের নেতৃত্বে একটি টিম তাকে সাত দিনের রিমান্ডের প্রথম দিনে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে রমনা মডেল থানায় রাখা হয়েছে। গত ৩ নভেম্বর সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত। ওইদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের সহকারী পরিচালক সাইফুল ইসলাম তার সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলেন।

গত ২৭ অক্টোবর ৪ কোটি ৩৪ লাখ ১৯ হাজার ৬৪৮ টাকা অবৈধভাবে অর্জনের অভিযোগে লোকমানের বিরুদ্ধে এই মামলা করে দুদক।

মামলার এজাহারে বলা হয়, ৬৪ লাখ ২০ হাজার টাকার স্থাবর সম্পত্তির হিসাব আয়কর নথিতে দেখালেও অনুসন্ধানে তার ‘সুনির্দিষ্ট কোনো বৈধ আয়ের উৎস’ পাওয়া যায়নি।

এতে বলা হয়, আসামি লোকমান হোসেন ভূঁইয়া তার আয়কর নথিতে ৭৩ লাখ ৭০ হাজার ৬৬৪ টাকার অস্থাবর সম্পদ ছাড়াও নিজ নামে ও তার স্ত্রী-সন্তানদের সঙ্গে যৌথভাবে আরও দুই কোটি ৯৬ লাখ ২৮ হাজার ৯৮৪ টাকার অস্থাবর সম্পদ অর্জন করেছেন। কিন্তু তা তাদের আয়কর নথিতে প্রদর্শন করেননি।

সেপ্টেম্বরের শেষে ঢাকার মতিঝিল এলাকার ওই ক্লাবে অভিযান চালিয়ে দুটো রুলেট টেবিল, নয়টি বোর্ড, বিপুল পরিমাণ কার্ড, ১১টি ওয়্যারলেস সেট ও ১০টি বিভিন্ন ধরনের চাকু পাওয়ার কথা জানায় পুলিশ।

এরপর ২৬ সেপ্টেম্বর তেজগাঁওয়ের মণিপুরিপাড়ার বাসা থেকে লোকমানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। গত ১৮ সেপ্টেম্বর ক্যাসিনোবিরোধী অভিযান শুরু করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। এর পরপরই গত ৩০ সেপ্টেম্বর অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত নিয়ে কাজ শুরু করে সংস্থাটির পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে সাত সদস্যের টিম অনুসন্ধানের দায়িত্ব দেয়া হয়।

টিমের অপর সদস্যরা হলেন উপ-পরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলম, সালাউদ্দিন আহমেদ, গুলশান আনোয়ার প্রধান, সহকারী পরিচালক সাইফুল ইসলাম, মামুনুর রশীদ চৌধুরী ও মোহাম্মদ নেয়ামুল আহসান গাজী।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ