শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে কুমিল্লাকে হারিয়ে ফাইনালে সাকিবের বরিশাল

১২ বলে প্রয়োজন ছিল ২২ রান। ক্রিজে ছিলেন ডু প্লেসি-সুনীল নারাইন। মেহেদি হাসান রানার প্রথম বলে সিঙ্গেল নেন প্লেসি, দ্বিতীয় বলটি ডট হলেও আম্পায়ার বাতিল করেন। তৃতীয় বলে নারাইনের সহজ ক্যাচ ফেলেন ব্রাভো। পরের বলেই মিড অনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন প্লেসি।

ম্যাচের নাটাই হাতে নিয়ে নেয় ফরচুন বরিশাল। রানা ১৯তম ওভারে ১ উইকেট নিয়ে মাত্র ৪ রান দেন। মুজিবের করা শেষ ওভারে ১৮ রান প্রয়োজন হলেও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স নিতে পেরেছে ৭ রান। শ্বাসরুদ্ধকর এই ম্যাচে ১০ রানে জিতে সবার আগে ফাইনাল নিশ্চিত করে সাকিবের দল বরিশাল।

সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) টস হেরে আগে ব্যাটিং করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৪৩ রান করে বরিশাল। রান তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৩৩ রানে থামে কুমিল্লা।

বিস্তারিত আসছে…

%d bloggers like this: