রাজশাহী রয়্যালসের কাছে ধরাশায়ী খুলনা টাইগার্স

খুলনা টাইগার্সকে ৭ উইকেটে পরাজিত করে বিপিএলের পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসলো রাজশাহী রয়্যালস। এই ম্যাচে রয়্যালস কাপ্তান আন্দ্রে রাসেল ব্যাটে ও বলে দারুন ক্যারিশমা দেখান। বল হাতে চার উইকেট তুলে নেয়ার পাশাপাশি আগ্রাসী মনোভাব দেখিয়ে ব্যাট হাতে ১৯ বলে করেন ২৮ রান।

ম্যাচ স্কোরকার্ড: খুলনা টাইগার্স বনাম রাজশাহী রয়্যালস

১৪৬ রানের সহজ জয়ের লক্ষ্যে রাজশাহীর হয়ে লিটন দাসের সাথে ওপেন করতে নামেন তরুণ আফিফ হোসেন। ৯ ওভারের মধ্যে উদ্ভোধনী জুটিতে ৭৫ রান সংগ্রহ করে রাজশাহীকে দারুন এক সূচনা এনে দেন এই দুই ব্যাটসমান।

ভালোই খেলছিলেন এই দুইজন কিন্তু ৯বম ওভারে একটু বাড়তি ঝুঁকি নিতে গিয়ে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরত যান ২২ রান করা আফিফ। আরো কিছুক্ষন উইকেটে টিকে থেকে নিজের ব্যক্তিগত অর্ধশতক পূর্ণ করে তানভীর ইসলামের বলে আউট হন ৪৪ বলে ৫৮ রান করা লিটন দাস।

আক্রমণাত্মক হতে গিয়ে ১৬তম ওভারে শহিদুল ইসলামের বলে লং-অনে ধরা পড়েন শোয়েব মালিক। এতে অবশ্য কোনো সমস্যায় পড়তে হয়নি রাজশাহীকে। কারণ অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল (২৮*) এবং রাবি বোপারার (১৩*) ৩২ রানের চতুর্থ উইকেটের জুটিতে দুই ওভার বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রাজশাহী রয়্যালস।

টসে জিতে খুলনা টাইগার্সকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় রাজশাহী রয়্যালসের কাপ্তান আন্দ্রে রাসেল। প্রথম ওভারেই আফগানী রাহমানুল্লাহ গুরবাজ এবং মেহেদী হাসান মিরাজের উইকেটটি তুলে নিয়ে খুলনাকে চাপে ফেলে দেয় অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল।

অল-রাউন্ড নৈপুণ্য দেখিয়ে ম্যাচ সেরা হন আন্দ্রে রাসেল

শুরুর দিকে দ্রুত উইকেট হারিয়ে চাপে পরা খুলনাকে টেনে তোলার চেষ্টা করেন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম এবং রাইলি রুশো। কিন্তু তাদের প্রচেষ্টা টাইগার্সদের খুব বেশি দূর এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেনি কারণ পঞ্চম ওভারে এসে পরপর দুই বলে মুশফিক এবং নাজমুল শান্তকে প্যাভিলিয়নে ফিরত পাঠান কামরুল ইসলাম রাব্বি। হ্যাট্রিকের সম্ভাবনা জেগে উঠলেও শেষ পর্যন্ত তিনিও ব্যর্থ হলেন।

খুলনার দক্ষিণ আফ্রিকান রিক্রুট রাইলি রুশো কিছুটা আক্রমণাত্মক মনোভাবে থাকলেও তিনিও দলের হয়ে দায়িত্ব নিতে ব্যর্থ হন। ২৪ বলে ৩৫ রান করে ১০ম ওভারে এসে আফিফের বলে আউট হন এই তারকা ব্যাটসম্যান।

পরের দিকে শামসুর রহমান শুভ (৫৫) এবং দীর্ঘদেহী রবি ফ্রাইলিংক (৩১) ষষ্ঠ উইকেটে ৬৭ রান যোগ করলে ইনিংসে কিছুটা ঘুরে দাঁড়াতে সমর্থ হয় খুলনা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইগার্সরা। রাজশাহীর হয়ে ৩৭ রানে সর্বাধিক ৪ উইকেট শিকার করেন আন্দ্রে রাসেল।

%d bloggers like this: