এ কেমন ফিল্ডিং

জিম্বাবুয়ে ইনিংসের শেষ দিকে উইকেটের
পেছনে ৮ ফিল্ডার রেখেছিলেন অধিনায়ক
মাশরাফি বিন মুর্তজা। অধিনায়ক জানালেন,
নাসির হোসেন বলেছিলেন বলেই আচমকা
সিদ্ধান্তে অমন মাঠ সাজানো!
জিম্বাবুয়ে ইনিংসের সেটি ৪৩তম ওভার,
উইকেটে শেষ ব্যাটসম্যান টাউরাই
মুজারাবানি। বল হাতে মুস্তাফিজুর রহমান।
হঠাৎ দেখা গেল, মাঠের নানা প্রান্ত থেকে
বাংলাদেশের সব ফিল্ডার ছুটছেন স্লিপের
দিকে!
এক সময় সাজানো হলো ফিল্ডিং, ৫ স্লিপ ও
৩ গালি! সঙ্গে বোলার ও উইকেট-কিপার। শুধু
মাহমুদউল্লাহকে রাখা হয়েছিল মিড অফে।
পরের বলের আগে অবশ্য মিড অনে আনা হয়
আরেকজনকে।
ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে উঠল সেই
প্রসঙ্গ। হাসতে হাসতে মাশরাফি জানালেন,
নাসিরের উৎসাহেই অমন ফিল্ডিং সাজানো।
“নাসির হঠাৎ চেঁচিয়ে বলছিল যে ‘সবকজন
স্লিপে আয়…সবাই’। তারপরই আমার মাথায়
আসল যে সব স্লিপে রাখি। অস্ট্রেলিয়া
করেছিল একবার। ওটাও মাথায় আসছিল।”
ওয়ানডেতে উইকেটের পেছনে এমন
ফিল্ডিংয়ের একটি দৃশ্য বিখ্যাত হয়ে আছে
ক্রিকেটে। ১৯৯৯ সালে হারারেতে
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই শেষ ব্যাটসম্যান
ডেভিড মুতেন্দেরার জন্য এভাবে উইকেটের
পেছনে ৯ ফিল্ডার রেখেছিলেন
অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভ ওয়াহ।
মাশরাফি বলছিলেন সেই ম্যাচের কথাই।
বড় দল হিসেবে নিজেদের প্রমাণ করার
কোনো বার্তা দেওয়া হিসেবে এটিকে
দেখতে চান না মাশরাফি। জানালেন স্রেফ
খানিকটা মনস্তাত্ত্বিক খেলার কথা।
“ক্রিকেট আসলে মাইন্ড গেম। মাইন্ড গেমে যত
এগিয়ে থাকবেন, ততটা সাফল্য পাবেন। যেমন
সাকিব। মানসিকভাবে সে মাঠে নামার
আগেই অন্যদের চেয়ে এগিয়ে থাকে বলে
বিশ্বের অন্যতম সেরা। আর আসলে কোনো
বার্তা দিতে চাইনি আমরা। নাসির চেঁচিয়ে
বলেছিল, এজন্য রেখেছি। কাটারে ক্যাচ
আসতে পারে বলে মিড অফ রেখেছিলাম
একটা। এই তো!”

%d bloggers like this: