Home > রাজনীতি > খালেদার বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণের আদেশ বিকেলে

খালেদার বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণের আদেশ বিকেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক
জনতার বাণী,

ঢাকা: রাজধানীর
যাত্রাবাড়ী এলাকায়
গাড়িতে পেট্রোল বোমা
মেরে যাত্রী হত্যার
মামলায় বিএনপি
চেয়ারপারসন খালেদা
জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে
অভিযোগপত্র গ্রহণের
বিষয়ে শুনানি শেষ
হয়েছে।
বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর
হাকিম সামসুল আরেফীন
অভিযোগপত্র গ্রহণের
বিষয়ে বিকেলে আদেশের
সময় ধার্য করেছেন।
এই মামলায় খালেদা
জিয়াকে ‘পলাতক’
দেখানো হয়েছে। অভিযুক্ত
৩৮ জনের মধ্যে সাতজন
কারাগারে রয়েছেন।
বিএনপি কর্মী বাবুল সরদার
বৃহস্পতিবার আত্মসমর্পণ
করেছেন।
অভিযোগত্রটি গ্রহণ করা
হলে খালেদা জিয়াসহ
পলাতক ৩০ জনের বিরুদ্ধে
গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
জারি হতে পারে।
এর আগে গত ৬ মে মহানগর
গোয়েন্দা পুলিশের
(ডিবি) উপপরিদর্শক (এসআই)
বশির উদ্দিন ঢাকা মুখ্য
মহানগর হাকিম আদালত
অভিযোগপত্র জমা দেন।
মামলায় হত্যা ও বিস্ফোরক
আইনে পৃথক দুটি
অভিযোগপত্র দেওয়া
হয়েছে। এতে খালেদা
জিয়াসহ ৩১ জনকে পলাতক
দেখানো হয়েছে। রুহুল
কবির রিজভীসহ সাতজন
জেলহাজতে রয়েছেন।
আদালতে বেগম খালেদা
জিয়াসহ পলাতক ৩১
আসামির বিরুদ্ধে
গ্রেপ্তারি পরোয়ানা
জারির আবেদন করা হয়। আর
সাক্ষী করা হয় ৮১ জনকে।
অভিযুক্ত অন্য আসামিরা
হলেন- বিএনপির স্থায়ী
কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার
রফিকুল ইসলাম মিয়া, এমকে
আনোয়ার, যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল
কবির রিজভী, আমানউল্লাহ
আমান, বরকত উল্লাহ বুলু, ভাইস
চেয়ারম্যান সেলিমা
রহমান, বিএনপি
চেয়ারপাসনের উপদেষ্টা
অ্যাডভোকেট খন্দকার
মাহবুব হোসেন, শওকত মাহমুদ,
বিএনপি চেয়ারপারসনের
প্রেস সচিব মারুফ কামাল
খান সোহেল,
চেয়ারপারসনের বিশেষ
সহকারী শামসুর রহমান শিমুল
বিশ্বাস, স্বেচ্ছাসেবক
দলের সভাপতি হাবিব-উন-
নবী খান সোহেলসহ ৩৮ জন।
চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি
রাতে যাত্রাবাড়ীর
কাঠেরপুল এলাকায় গ্লোরি
পরিবহনের যাত্রীবাহী
একটি বাসে পেট্রোল
বোমা নিক্ষেপ করা হয়।
এতে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ
হন। তাদের ঢাকা
মেডিকেল কলেজ
হাসপাতালের বার্ন
ইউনিটে ভর্তি করা হলে ১
ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন
অবস্থায় মারা যান নূর আলম
(৬০) নামে এক যাত্রী।
ওই ঘটনায় ২৪ জানুয়ারি
বিকেলে খালেদা
জিয়াকে হুকুমের আসামি
করে যাত্রাবাড়ী থানায়
মামলা করেন থানার
উপপরিদর্শক (এসআই) কে এম
নুরুজ্জামান।
১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা
আইনের ১৫/২৫(ঘ) ধারায়
দায়ের করা মামলায়
পেট্রোল বোমা
নিক্ষেপের
পরিকল্পনাকারী হিসেবে
বিএনপির ১৮ নেতার নাম
উল্লেখ করা হয়। এছাড়া
পরিকল্পনা
বাস্তবায়নকারী হিসেবে
যাত্রাবাড়ী বিএনপির ৫০
নেতাকর্মীকে আসামি
করা হয়।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ