Home > রাজনীতি > বিএনপির সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব নাকচ আ.লীগ সভাপতির

বিএনপির সঙ্গে আলোচনার প্রস্তাব নাকচ আ.লীগ সভাপতির

আগামী জাতীয় নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপির আলোচনার প্রস্তাব নাকচ করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের উপদেষ্টা পরিষদ ও কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সঙ্গে বৈঠককালে বিএনপির ওই প্রস্তাব নাকচ করে দেন শেখ হাসিনা। দলীয় সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

শনিবার বিকেল ৪টা ২৫ মিনিটের দিকে নিজের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আসেন আওয়ামী লীগের সভানেত্রী। প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘদিন পর কার্যালয়ে এসে দলের অঙ্গ, সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এরপর কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটি ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

গতকাল শুক্রবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর আশা প্রকাশ করেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধী দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে আগামী নির্বাচন ও রাজনীতির গতিপথ নির্ধারণ করবেন।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের তিন বছর পূর্তি উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের প্রতিক্রিয়ায় এ সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি।বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে শুধু আওয়ামী লীগ সভাপতি ও দলের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য হোসেন মনসুর কথা বলেন। বাংলাদেশের যেসব রাজনৈতিক দল স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অস্বীকার করে রাজনীতি করবে সেসব দলের নিবন্ধন বাতিলের জন্য প্রয়োজনীয় আইন করার আহ্বান জানান হোসেন মনসুর। পাশাপাশি দেশের সব রাজনৈতিক দলের কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি টাঙানোর ব্যাপারে আইন করারও আহ্বান জানান।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী এটা আমাদের দলীয় বিষয় না বলে উল্লেখ করেন। এরপর তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বিএনপির আলোচনার প্রসঙ্গে বলেন, যে দল ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে আমাকে হত্যা করতে চায়, সেই খুনি দলের সঙ্গে কীসের আলোচনা? খুনিদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ বসতে পারে না। খুনিদের সঙ্গে আলোচনা হবে না। যখন ডেকেছিলাম, তখন আমাকে কি অপমান করেছে- এটা দেশবাসী জানে।

বৈঠকে নির্বাচন কমিশন (ইসি) পুনর্গঠন নিয়ে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে ২০১৪ সালে সালের ৭ নভেম্বর নিজের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আসেন আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। দীর্ঘ দিন পর শনিবার তিনি রাজনৈতিক কার্যালয়ে যান। এ সময় তিনি কার্যালয়ের পাশে বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের নামে কেনা ভবনও পরিদর্শন করেন।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ