Home > রাজনীতি > রাবি ক্যাম্পাসে গুঞ্জন, আজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা

রাবি ক্যাম্পাসে গুঞ্জন, আজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা

রা.বি. প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রলীগের ২৫তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে বৃহস্পতিবার। এই দিন কমিটি ঘোষণা না করেই ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা রাজশাহী ছেড়েছেন। তবে আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ।

সোহাগ বলেন, বৃহস্পতিবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হলেও বিভিন্ন কারণে কমিটি ঘোষণা করা সম্ভব হয়নি। আমরা রাজশাহী মহানগর আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে এসেছি। এখন আমরা বসে আলোচনা করে আজ সন্ধ্যায় কমিটি ঘোষণা করবো।

এদিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সভাপতি পদে মিনারুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক পদে সাকিবুল হাসান বাকির নামের গুঞ্জন ক্যাম্পাসে শুরু হয়েছে। ক্যাম্পাসে মিনারুল ও বাকির সমর্থকদের মধ্যে উচ্ছ্বাসও দেখা যাচ্ছে। তবে কেন্দ্রীয় নেতারা এখনো কমিটি ঘোষণা না করায় পদ প্রত্যাশী সকল নেতাকর্মীদের মাঝে অস্থিরতা বিরাজ করছে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সম্মেলন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার দুপুর ১টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় পদ প্রত্যাশীদের ভাইভা নেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতারা। ভাইভা শেষে রাজশাহী মহানগর আওয়ামীলীগ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা। সেখান থেকে নতুন কমিটির নেতাদের নাম ঘোষণা কারার কথা থাকলেও কোনো ঘোষণা না দিয়েই ক্যাম্পাস ত্যাগ করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।

সিনেট ভবনের পেছনের দরজা দিয়ে বের হয়ে যান মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন ও সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। তার পরপরই সিনেট ভবন এলাকায় বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। কমিটি ঘোষণা না করেই রাত সাড়ে এগারোটার দিকে রাজশাহী রেল স্টেশন থেকে ঢাকাগামী ট্রেনে ওঠেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বৈঠকে উপস্থিত মহানগর আওয়ামীলীগের এক নেতা জানান, নতুন কমিটির সাধারণ সম্পাদক পদের জন্য ফয়সাল আহমেদ রুনুর নাম প্রস্তাব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুজ্জামান লিটন। কিন্তু ছাত্রত্ব না থাকায় রুনুকে সাধারণ সম্পাদক পদ দিতে আগ্রহী নয় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতারা।

এদিকে, এই খবর প্রকাশ হওয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতেই ভেঙ্গে পড়েন রুনুর সমর্থকরা। সেই সঙ্গে রুনুর কয়েকজন কর্মী-সমর্থককে কান্নাকাটিও করতে দেখা যায়। হতাশা দেখা দিয়েছে আরেক হেভিওয়েট প্রার্র্থী গোলাম কিবরিয়ার কর্মী-সমর্থকদের মাঝেও।

এ বিষয়ে রাবি ছাত্রলীগের বিদায়ী সভাপতি রাশেদুল ইসলাম রাঞ্জু বলেন, যোগ্য প্রার্থীর হাতেই রাবি ছাত্রলীগের দায়িত্ব দেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় নেতারা একটু সময় নিচ্ছেন। প্রার্থীদের সব বিষয় পুঙ্খানুপুঙ্খানুভাবে বিশ্লেষণ করেই তারা কমিটি ঘোষণা করবেন।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ