Home > রাজনীতি > ‘নিজামীর রক্ত জালিমের পতন ত্বরান্বিত করবে’

‘নিজামীর রক্ত জালিমের পতন ত্বরান্বিত করবে’

নিউজ ডেস্ক

জনতার বাণী,

ঢাকা: দেশ ও জাতি গঠনে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর

আমীর ও সাবেক মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর

বলিষ্ঠ নেতৃত্ব, জনপ্রিয়তা ও ঐতিহাসিক ভূমিকার কারণে

আওয়ামী লীগ তাকে হত্যা করেছে বলে মন্তব্য

করেছেন দলটি নেতা ড. মুহাম্মদ রেজাউল করিম।

জামায়াতে ইসলামী রমনা থানা আয়োজিত রাজধানীর

মগবাজারের একটি মিলনায়তনে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে তিনি

এসব কথা বলেন বলে দলের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা

হয়।

দোয়া পূর্ব আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ

জামায়াতে ইসলামী কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ড.

মুহাম্মদ রেজাউল করিম বলেন, ‘বিশ্বনন্দিত ইসলামী

আন্দোলনের অন্যতম নেতা, মুসলিম উম্মাহর অভিভাবক ও

বলিষ্ঠ কণ্ঠস্বর, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইসলামিক স্কলার,

চিন্তবিদ, বহু গ্রন্থ প্রণেতা, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর

আমীর, সাবেক সফল মন্ত্রী মাওলানা মতিউর রহমান

নিজামীকে হত্যা করে আওয়ামী লীগ গোটা মুসলিম

উম্মাহর হৃদয়ে আঘাত হেনেছে।’

তিনি বলেন, ‘অসংখ্য আলেম ও ইসলাম প্রিয় জনগণের রুহানি

উস্তাদ মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি

ছিলেন এক অসাধারণ ইসলামী ব্যক্তিত্ব। ২০১৫ সালে

আমেরিকার বিখ্যাত ‘দ্যা রয়েল ইসলামিক স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ

সেন্টার’ প্রকাশিত তালিকায় বিশ্বের ৫০০ জন প্রভাবশালী

মুসলিম ব্যক্তির তিনি অন্যতম। সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে

দেশবাসীর কল্যাণে নিবেদিত ব্যক্তিত্ব হিসেবেই তিনি

জনগণের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন।’

ড. করিম বলেন, ‘জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা ও গণতান্ত্রিক

আন্দোলনে বলিষ্ঠ ভূমিকা বাংলাদেশের মর্যাদাকে

বহির্বিশ্বের কাছে উজ্জ্বল করেছে। তিনি ছিলেন

দুর্নীতিমুক্ত ও ইনাসফভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণের

অগ্রসেনানী। একটি সুখী-সমৃদ্ধ ও ইনসাফভিত্তিক সমাজ

বিনির্মাণের কারিগর হিসেবে মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর

অবদান এ জাতি চিরদিন স্মরণ রাখবে।’

জামায়াতের এই নেতা বলেন, ‘ছাত্র আন্দোলন থেকে শুরু

করে সংগ্রাম করে আসা মজলুম জননেতা নিজামী জেল-

জুলুম, নির্যাতন আর রক্তাক্ত পথ পাড়ি দিয়ে শাহাদাতের অমিয় শুধা

পান করেছেন। নিজামী ছিলেন সাম্রাজ্যবাদ ও আধিপত্যবাদী

শক্তির বিরুদ্ধে আপোসহীন বীরপুরুষ। এদেশের

মানুষের তাহজীব-তামুদ্দুন, ধর্ম-বর্ণ, নির্বিশেষে সবার

অধিকার রক্ষার আন্দোলনে তিনি ছিলেন প্রথম কাতারে।’

রেজাউল করিম বলেন, ‘বিগত অর্ধশতাব্দী কাল যিনি এ

জমীনে আল-কুরআনের আহ্বান পৌঁছিয়েছেন দেশের

প্রতিটি প্রান্তে-প্রান্তে। মানবতার সেবায় যে জীবন

নিয়োজিত করেছেন আর তাকে হত্যা করা হয়েছে মানবতা

বিরোধী কর্মকাণ্ডের জন্য!! কি সেলুকাস এ পৃথিবী! কি

অদ্ভুত আর বিস্ময়কর আমাদের রাজনীতি! কত নিষ্ঠুর, নোংরা,

কুলষিত, ক্ষমতার মোহে দিকভ্রান্ত আওয়ামী লীগের এই

নেতিবাচক শিষ্টাচার বহির্ভূত অপরাজনীতি! ধিক আজকের

সমাজের এই ঘৃণিত বিষবাস্পকে। ধিক আওয়ামী লীগের এই

অমানবিক, ফ্যাসিস্ট চরিত্রকে। কিন্তু মনে রাখতে হবে

আওয়ামী লীগের ক্ষমতা ও চিরস্থায়ী নয়।’

তিনি বলেন, ‘যুগে যুগে নবী-রাসূল ও সত্যপন্থীদের

ওপর জেল-জুলুম, অত্যাচার-নির্যাতন, নিপীড়ন হয়েছে নানা

ভাবে, নানা কৌশলে। কিন্তু কোনো দলন নিপীড়নই

ইসলামী আন্দোলনের পথচলা থামিয়ে দিতে পারেনি,

এখনো পারবে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘মতিউর রহমান নিজামীর বিরুদ্ধে আনা

অভিযোগ শুধু মিথ্যাই নয়, যুগের শ্রেষ্ঠ মিথ্যাচার। ইতিহাস

বলে শহীদের রক্ত বৃথা যায় না। শহীদের রক্তের সিঁড়ি

বেয়ে বিজয় আসবেই। শহীদ মতিউর রহমান নিজামীর

রক্ত বাংলার ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলে মজলুমের বিজয় ও

জালিমের পতনকে ত্বরান্বিত করবে।’

আলোচনা শেষে দোয়া পরিচালনা করেন ড. মুহাম্মদ

রেজাউল করিম।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন- থানা সেক্রেটারি

অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, থানা কর্মপরিষদ সদস্য ইউসুফ

আলী মোল্লা, আব্দুল কাইয়ুম ফয়সাল, ছাত্র নেতা শান্ত

শিশির, আনিসুর রহমান প্রমুখ।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ