Home > রাজনীতি > শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টারের হত্যার বিচারের রায় অবিলম্বে কার্যকরের দাবি

শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টারের হত্যার বিচারের রায় অবিলম্বে কার্যকরের দাবি

শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টারের সন্তান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, আদর্শের কখনো মৃত্যু হয় না। শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ছিলেন। তিনি সকল কর্মীর মাঝে বেঁচে থাকবেন চিরকাল।’ এ সময় আহসানউল্লাহ মাস্টারের হত্যার বিচারের রায় অবিলম্বে কার্যকরের দাবি জানান তিনি।

শুক্রবার (২৮ মে) গাজীপুরের কাউনতিয়া পোড়াবাড়ী মাঠে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী একথা বলেন।

প্রখ্যাত শ্রমিক নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের ১৭তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে গাজীপুর মহানগর কাউনতিয়া সাংগঠনিক থানা ও ১৯-২৩ নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের উদ্যোগে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

শহীদ আহসানউল্লাহ মাস্টারকে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ সম্মাননা পদক স্বাধীনতা পুরস্কার ২০২১ প্রদান করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সাধারণ সম্পাদক একেএম আফজালুর রহমান বাবু। তিনি শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবন সম্পর্কে আলোকপাত করেন এবং শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

স্মরণ সভায় বক্তারা বলেন, দেশের আন্দোলন, সংগ্রাম, অধিকার নিশ্চিতকরণে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টারের নাম চির অক্ষয় হয়ে থাকবে। তিনি সততা, আদর্শের ইতিহাস তৈরি করে গেছেন। তিনি বেঁচে থাকবেন মানুষের হৃদয়ে।

বক্তারা আরও বলেন, পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বর, ২০০৪ এর ২১ আগস্ট এবং ২০০৪ সালের ৭ মে আহসান উল্লাহ মাস্টারের হত্যাকাণ্ড- একই সূত্রে গাঁথা। স্বাধীনতা বিরোধীরা বিভিন্ন সময় মুক্তিযুদ্ধের আদর্শকে হত্যা করার জন্য এসব হত্যাকাণ্ড- ঘটিয়েছে।

তারা বলেন শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার গাজীপুর মাটি ও মানুষের কল্যাণে যে অবদান রেখে গেছেন তা শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে চিরদিন।

সভায় বক্তারা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার রায় অবিলম্বে কার্যকর করার জোরালো দাবি জানান।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী
শিরোনামঃ