Home > রাজনীতি > স্বামীকে দেখে অঝোরে কাঁদলেন হাসিনা আহমেদ

স্বামীকে দেখে অঝোরে কাঁদলেন হাসিনা আহমেদ

নিউজ ডেস্ক
জনতার বাণী,
শিলং: উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠা!
দীর্ঘ দুই মাসের প্রতিটি
রাতে তাড়া করে ফিরেছে
অজানা শঙ্কা। এরই মধ্যে খবর
ছড়িয়েছে,
চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুর্গম চরে
পড়ে আছে লাশ। সন্তানদের
নিয়ে ভেঙে পড়েছেন
কান্নায়। পরক্ষণে মনকে
সান্ত্বনা দিয়ে সন্ধান
করেছেন, লাশটির সঠিক
পরিচয়।
লাশটি নিখোঁজ স্বামীর না,
জানার পর ফের আশাবাদী
হয়েছেন। নিষ্প্রভ চেহারা
নিয়ে সারাক্ষণ স্বামীর
সন্ধান করছেন। আদালত
থেকে সংবাদ সম্মেলন, ছুঁটে
গেছেন প্রধানমন্ত্রীর
কাছে। আপ্লুত হয়ে কেঁদে
দিয়েছেন সবার সামনে।
তিনি হাসিনা আহমেদ,
বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ
উদ্দিন আহমেদের স্ত্রী।
প্রতি মুহূর্তের এসব উৎকণ্ঠা
পেরিয়ে গত ১১ মে জানতে
পারলেন তার স্বামী বেঁচে
আছেন।
ভারতের মেঘালয় রাজ্যের
শিলংয়ের একটি
হাসপাতালের মাধ্যমে
নিজে স্বামীর সঙ্গে কথাও
বললেন। এরপর থেকেই
অপেক্ষা, কখন দেখা হবে।
পাঁচ দিনের মাথায় গত রবিবার
সন্ধ্যায় ভিসা পেয়ে রাতেই
কলকাতা যান হাসিনা
আহমেদ।
সেখান থেকে গতকাল
সোমবার শিলং পৌঁছান
তিনি। রাত আটটার দিকে
শিলংয়ের সিভিল
হাসপাতালে স্বামীর সঙ্গে
দেখা করেন হাসিনা
আহমেদ।
এতদিনের নীরব কান্না এদিন
আর বাঁধ মানেনি হাসিনা
আহমেদের। কান্নায় ভেঙে
পড়েন তিনি। তা দেখে
নিজেকে সামলে রাখতে
পারেননি সালাহ উদ্দিনও।
দুজনই কান্নায় ভেঙে পড়েন।
তবে এ কান্না কষ্টের নয়।
দীর্ঘ দুই মাস ঝড়ের পর তাদের
চোখে স্বস্তির বৃষ্টি হয়ে
ঝরল অশ্রু।
বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক
আবদুল লতিফ জনি জানান,
ভারতের মেঘালয় রাজ্যের
শিলং সিভিল হাসপাতালে
সালাহ উদ্দিনের দেখা
পেতে হাসিনা আহমেদকে
যেতে হয়েছে আটক
ব্যক্তিদের জন্য সংরক্ষিত
সেলে।
তিনি বলেন, স্থানীয় সময়
গতকাল সোমবার রাত প্রায়
আটটার দিকে সালাহ
উদ্দিনের সঙ্গে দেখা হয়
তার। এ সময় দুজনই কান্নায়
ভেঙে পড়েন। এর কিছু সময় পর
হাসিনা আহমেদ স্বামীর
স্বাস্থ্যের খবর নেন। দুজন কথা
বলেন ভারত থেকে ফেরার
আইনানুগ বিষয়াদি নিয়ে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ