Home > রাজনীতি > বাবার শক্তিই তার মেয়ে

বাবার শক্তিই তার মেয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক : আগামী ৩০ জুলাই রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন (রাসিক) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ভোটের ক্ষণ যেন দারজায় কড়া নাড়ছে। গণসংযোগে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। শেষ মুহূর্তের প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

বাবার বিজয় সুনিশ্চিত করতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন তার মেয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা। কখনো একাই আবার কখনো ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন তিনি। রাজশাহীর উন্নয়নে তার বাবার মহাপরিকল্পনা সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে পৌঁছে দিচ্ছেন। দিন-রাত ভোটারদের জানান দিচ্ছেন বাবার আধুনিক রাজশাহী গড়ার দৃঢ় প্রত্যয়। যেন বাবার আসল শক্তিই তার মেয়ে।

এমবিবিএস পাস করা অর্ণা মন দিয়েছেন রাজনীতিতে। তিনি বলছেন, আমার বাবার রাজনীতির সবটুকুই রাজশাহীর মানুষের স্বার্থে। রাজশাহীকে বদলে দিতে ও মানুষের জীবনযাত্রার উন্নয়নে মেয়র হিসেবে তাকে খুব প্রয়োজন। মানুষের কাছে তার উন্নয়নের বার্তা পৌঁছে দিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছি।

এদিকে, নৌকার পক্ষে পোস্টার, ব্যানার ও ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে গোটা রাজশাহী। প্রতিদিন বিভিন্ন ওয়ার্ডে বাড়ি বাড়ি গিয়ে আওয়ামী লীগে ও সহযোগী সংগঠণের সদস্যরা লিফলেট বিতরণ করছেন। তুলে ধরছেন আওয়ামী লীগ সরকারের নানা উন্নয়নের চিত্র। তারা মানুষকে জানাচ্ছেন, উন্নয়নের জন্য আওয়ামী লীগ সরকারের কোন বিকল্প নেই।

রাসিক নির্বাচনে ভোটারদের বড় একটি অংশ তরুণ ভোটার। এ তরুণ ভোটাদের মতামত প্রার্থীকে নির্বাচিত করার ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তরুণ ভোটারদের মাঝে নৌকার পক্ষে মত তৈরীতে অর্ণার প্রচারণা বেশ গুরুত্ববহ। ইতোমধ্যে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে বেশ সাড়াও ফেলেছেন তিনি।

জানতে চাইলে আনিকা ফারিহা জামান অর্ণা বলেন, তার বাবা খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহীর মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন নিয়ে ভাবেন। এ অঞ্চলের উন্নয়নে তার মহাপরিকল্পনা রয়েছে। তিনি মেয়র থাকাকালে একটি আধুনিক ও দৃষ্টিনন্দন শহর গড়ে তোলেন। কিন্তু গত ৫ বছরে সে অগ্রগতি থেকে রাজশাহী অনেকটা পিছিয়ে পড়েছে। রাজশাহী আবারও বদলে দিতে নৌকার বিকল্প নেই।

সাধারণ মানুষের মাঝে নৌকার গণজোয়ার পরিলক্ষিত হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রচারণা করতে গিয়ে দেখেছি, মানুষ এখন খায়রুজ্জামান লিটনের অভাব বুঝতে পেরেছেন। তারা আগের ভুল আর করতে চায় না। ভোটারদের এমন মনোভাব দেখে আমরাও উজ্জীবিত।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ