Home > রাজনীতি > শিলংয়ের পথে হাসিনা আহমেদ

শিলংয়ের পথে হাসিনা আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
জনতার বাণী,
ঢাকা: স্বামী বিএনপির
যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন
আহমেদের সঙ্গে দেখা
করতে কলকাতা থেকে
শিলংয়ের উদ্দেশে রওনা
করছেন তার স্ত্রী ও সাবেক
এমপি হাসিনা আহমেদ।
রবিবার রাত পৌনে ১০টার
দিকে এয়ার ইন্ডিয়ার
একটি ফ্লাইটে তিনি হযরত
শাহজালাল আন্তর্জাতিক
বিমানবন্দর ত্যাগ করেন।
এরপর দুইজন সঙ্গীকে নিয়ে
হাসিনা আহমেদ রাত
পৌনে ১১টার দিকে
কলকাতায় নেতাজি সুভাষ
চন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক
বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।
হাসিনা আহমেদ রাতে
কলকাতা অবস্থান করেন।
সকালে গোহাটি হয়ে
মেঘালয়ের শিলং রওনা
করেন। তাদের নিতে
গতকাল রাতেই কলকাতা
আসেন সালাহ উদ্দিনের
ভাইয়ের স্ত্রী।
তারা সবাই শিলং সিভিল
হাসপাতালে প্রায় দুই মাস
নিখোঁজ থাকার পর গত ১১
মে উদ্ধার সালাহ উদ্দিন
আহমেদের সঙ্গে দেখা
করবেন।
বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব
সালাহ উদ্দিন আহমেদের
স্ত্রী হাসিনা আহমেদের
সঙ্গে ঢাকা থেকে
গেছেন সালাহ উদ্দিনের
বোন জামাই মাহবুবুল কবির
মুনমুন ও এক নিকটাত্মীয়।
এর আগে রবিবার বিকেলে
ভিসা পান হাসিনা
আহমেদ।
উল্লেখ্য, প্রায় দুই মা
নিখোঁজ থাকার পর গত ১১
মে শিলংয়ের গলফ লিংক
এলাকা থেকে গ্রেপ্তার
করা হয় বিএনপি নেতা
সালাহ উদ্দিন আহমেদকে।
অবৈধভাবে ভারতে
প্রবেশের অভিযোগে
ফরেনার্স অ্যাক্টে তার
বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
বর্তমানে সাবেক এই
প্রতিমন্ত্রী শিলং সিভিল
হাসপাতালে
কারাবন্দিদের জন্য
নির্ধারিত সেলে
চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
সেখানে কিডনি, লিভার
ও হৃদযন্ত্রের সমস্যার
চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি।
এরই মধ্যে সালাহ উদ্দিনের
সঙ্গে বিএনপির সহ-দপ্তর
সম্পাদক আবদুল লতিফ জনি ও
তার এক আত্মীয় দেখা
করেছেন।
এছাড়া সালাহ উদ্দিন
আহমেদের ব্যাপারে খবর
সংগ্রহ করতে শুক্রবার
সকালে ঢাকা ও কলকাতা
থেকে বেশকিছু
গণমাধ্যমকর্মী শিলংয়ে
পৌঁছেছেন। তবে তারা
সালাহ উদ্দিন আহমেদের
সঙ্গে এখন পর্যন্ত
সাক্ষাতের সুযোগ পাননি
বলে জানা গেছে।
গত ১০ মার্চ থেকে
‘নিখোঁজ’ ছিলেন বিএনপির
যুগ্ম-মহাসচিব সালাহ উদ্দিন
আহমেদ। তাকে উত্তরার
একটি বাসা থেকে
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী
বাহিনীর পরিচয়ে তুলে
নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে
তার পরিবার ও দলটির পক্ষ
থেকে দাবি করা হয়।
তবে সালাহ উদ্দিন
আহমেদকে আটক করা হয়নি
বলে দাবি করে আসছে
আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী
বাহিনী।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ