Home > রাজনীতি > জামায়াত নেতা সুবহানের আপিল শুনানি ১৬ অক্টোবর

জামায়াত নেতা সুবহানের আপিল শুনানি ১৬ অক্টোবর

নিজস্ব প্রতিবেদক : মৃত্যুদণ্ডের সাজার বিরুদ্ধে জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির আবদুস সুবহানের করা আপিল শুনানির জন্য আগামী ১৬ অক্টোবর দিন ধার্য করেছেন সুপ্রিম কোর্ট।

একইসঙ্গে এই মামলার আপিলের সারসংক্ষেপ দুই সপ্তাহের মধ্যে আদালতে দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বুধবার সকালে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন তিন বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ দিন ধার্য করেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আবদুস সুবহানের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড জয়নাল আবেদিন তুহিন।

এর আগে গত সোমবার মৃত্যুদণ্ডের সাজার বিরুদ্ধে জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির আবদুস সুবহানের আপিল সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় আসে। সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বুধবারের কার্যতালিকার তিন নম্বর ক্রমিকে সুবহানের মামলা ছিল।

দীর্ঘদিন বিচার থমকে থাকার পর গত ১৩ আগস্ট জামায়াত নেতা এ টি এম আজহারুল ইসলাম ও প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী জাতীয় পার্টি নেতা সৈয়দ মোহাম্মদ কায়সারের আপিল কার্যতালিকায় আসে। ১২ আগস্ট সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত কার্যতালিকায় দুই ও তিন নম্বরে আজহার ও কায়সারের আপিল ছিল। এর দুদিনের ব্যবধানে সুবহানের আপিল কার্যতালিকাভুক্ত হয়েছে।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ২০১৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি জামায়াত নেতা সুবহানকে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে ওই বছরের ১৮ মার্চ আপিল করেন তিনি। ৮৯ পৃষ্ঠার মূল আপিলসহ ১ হাজার ১৮২ পৃষ্ঠার আপিল আবেদনে ৯২টি যুক্তি দেখানো হয়।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে তার বিরুদ্ধে সরকারপক্ষের উত্থাপিত নয়টি অভিযোগের মধ্যে ছয়টি প্রমাণিত হয়। এর মধ্যে তিনটিতে মৃত্যুদণ্ড, দুটিতে আমৃত্যু কারাদণ্ড ও একটিতে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। অপর তিনটি অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় সংশ্লিষ্ট অভিযোগ থেকে খালাস দেওয়া হয়।

২০১২ সালের ২০ সেপ্টেম্বর পাবনার একটি ফৌজদারি মামলায় সুবহানকে গ্রেপ্তার করার পর ওই বছরের ২৩ সেপ্টেম্বর তাকে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক দেখানো হয়। সেই থেকে তিনি কারাবন্দি।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ