Home > রাজনীতি > বিচারহীনতার সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে: ইফতেখার

বিচারহীনতার সংস্কৃতি প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে: ইফতেখার

নিজস্ব প্রতিবেদক
জনতার বাণী,
ঢাকা: ট্রান্সপারেন্সি
ইন্টারন্যাশনাল অব
বাংলাদেশের (টিআইবি)
নির্বাহী পরিচালক ড.
ইফতেখারুজ্জামান বলেছেন,
১৯ বছর পার হলেও কল্পনা
চাকমা অপহরণ মামলার
কোনো সুরাহা হয়নি। এতে
প্রমাণিত হয় দেশে
বিচারহীনতার সংস্কৃতি
প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে।
তিনি সোমবার জাতীয়
প্রেসক্লাবে পার্বত্য
চট্টগ্রামবিষয়ক আন্তর্জাতিক
কমিশন আয়োজিত সংবাদ
সম্মেলনে একথা বলেন।
ইফতেখারুজ্জামান বলেন,
কোনো অপরাধ সংঘটিত
হওয়ার পর তার সুষ্ঠু বিচার না
হলে, অপরাধীরা বিচার
থেকে মুক্তি পেলে সমাজে
অপরাধ বেড়ে যায়। অন্যরাও
একই অপরাধে উৎসাহিত হয়,
যেটি এখন আমরা
বাংলাদেশে দেখতে
পাচ্ছি।
তিনি বলেন,
বিচারহীনতাকে উৎসাহিত
করতে যে উপাদান প্রয়োজন
বর্তমান আমলে তার সবই করা
হচ্ছে।
টিআইবি নির্বাহী জোর
দিয়ে বলেন, রাষ্ট্রের
দায়িত্ব ছিল কল্পনা
চাকমাকে উদ্ধার করা। কারণ
কল্পনা চাকমা শুধু একজন নারীর
নাম নয় বরং একজন নাগরিকের
নাম। তাকে উদ্ধার করতে না
পারা রাষ্ট্রের বিরাট
ব্যর্থতা।
সংবাদ সম্মেলনে আইন ও
সালিস কেন্দ্রের (আসক)
নির্বাহী পরিচালক সুলতানা
কামাল বলেন, পার্বত্য
চট্টগ্রামের আদিবাসী
নারীর ওপর নির্যাতন ও অপহরণ
ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের
অধিকাংশ সময় অভিযোগ ও
শাস্তি থেকে মুক্তি দেওয়া
হয়।
তিনি বলেন, পার্বত্য
চট্টগ্রামের বহু মামলা কল্পনা
চাকমার মামলার মত বহু বছর
ঝুলে আছে। এসব মামলার
সুরাহা না হওয়ায় এ ধরনের
ঘটনা বার বার ঘটছে।
সংবাদ সম্মেলনে অবিলম্বে
কল্পনা চাকমা অপহরণ মামলার
সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ তদন্ত, কল্পনা
চাকমার অবস্থান সম্পর্কে
অভিযুক্তদের নিবিড়ভাবে
জিজ্ঞাসাবাদ, ডিএনএ
পরীক্ষার মত অপ্রাসঙ্গিক
বিষয়কে সামনে এনে মামলা
সংশ্লিষ্টদের বিভ্রান্ত না
করা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়
থেকে মনিটর সেল গঠন করাসহ
চারটি দাবি উপস্থাপন করা
হয়।
এ সময় আয়োজক সংগঠনের
নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ