‘শ্রমিকের ন্যায্য মজুরি ছাড়া গণতন্ত্রের কথা বলা প্রহসন

নিজস্ব প্রতিবেদক : শ্রমিকের ন্যায্য মজুরি ও ট্রেড ইউনিয়ন অধিকার ছাড়া গণতন্ত্রের কথা বলা প্রহসন বলে মন্তব্য করেছেন বাসদের সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের ৩৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে এ মন্তব্য করেন তিনি।

খালেকুজ্জামান বলেন, দেশের কোটি কোটি শ্রমিকের ন্যায্য মজুরি, গণতান্ত্রিক শ্রম আইন, ট্রেড ইউনিয়ন আইন, কর্মক্ষেত্রে জীবনের নিরাপত্তা, মৃত্যুবরণ কিংবা আহত হলে যথাযথ ক্ষতিপূরণ ছাড়া সমাজে গণতন্ত্র আছে বলা প্রহসনের নামান্তর।

তিনি বলেন, রাষ্ট্র এবং সরকার মালিকদের অনেক সুবিধা দিলেও ন্যায্য মজুরি চাইলে শ্রমিক নেতাদের ওপর নেমে আসে নির্যাতন। দেশে শ্রমজীবী মানুষের সংখ্যা ৭ কোটিরও বেশি, তাদের ন্যায্য মজুরি প্রতিষ্ঠিত না হলে মধ্যম আয়ের দেশ কাদের? দেশের প্রবৃদ্ধি ও জাতীয় আয় বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বৈষম্য ক্রমাগত বাড়ছে।

রানা প্লাজা, তাজরিন, ট্যাম্পাকো দুর্ঘটনায় শ্রমিকদের মৃত্যুর পর এ নিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি হলেও এখনো ক্ষতিপূরণের মানদণ্ড নির্ধারণ হয়নি বলে অভিযোগ করেন খালেকুজ্জামান।

আশুলিয়ায় শ্রমিক আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, মজুরি বৃদ্ধির আন্দোলনের পর শ্রমিক নেতাদের মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার, শত শত শ্রমিককে ছাঁটাই করা হলেও আইন ভঙ্গকারী মালিকদের বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয় নাই। শ্রমিকের শ্রম ও দেশের সম্পদ লুটপাটকারীদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য আহ্বান জানান তিনি।

শ্রমিকদের নূন্যতম মজুরি ১৫ হাজার টাকা, গণতান্ত্রিক শ্রম আইন, ট্রেড ইউনিয়ন আইন, কর্মক্ষেত্রে জীবনের নিরাপত্তা এবং আশুলিয়ার ঘটনায় গ্রেপ্তার সকল নেতাদের মুক্তির দাবি জানান তিনি।

সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সভাপতি জাহেদুল হক মিলুর সভাপতিত্বে সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন, সমাজতান্ত্রিক ক্ষেতমজুর ও কৃষক ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক বজলুর রশীদ ফিরোজ, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সহসভাপতি ওসমান আলী, আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

%d bloggers like this: