Home > বিশ্বজুড়ে বাংলাদেশ > সামিউল হত্যাকাণ্ড: পালিয়ে যাওয়া আসামি কামরুল সৌদিতে গ্রেপ্তা

সামিউল হত্যাকাণ্ড: পালিয়ে যাওয়া আসামি কামরুল সৌদিতে গ্রেপ্তা

 নিজস্ব প্রতিনিধি
জনতার বাণী,
সিলেটে সামিউল আলম রাজন হত্যার মূল হোতা কামরুল ইসলাম সৌদি আরবের জেদ্দায় আটক হয়েছেন। সোমবার বাংলাদেশ সময় রাতে তাকে আটক করা হয়।

রাইজিংবিডির সৌদি প্রতিনিধি লোকমান বিন নূর হাসেম জানিয়েছেন, সামিউল ‍রাজন হত্যার মূল হোতা কামরুলকে সৌদি আরবে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টার দিকে জেদ্দার জামেয়া এলাকা থেকে তাকে আটক করে প্রবাসী বাংলাদেশিরা। পরে তাকে সৌদি পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়।

এর আগে সৌদি সফররত বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের কামরুলকে আটক করে পুলিশে দিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ দূতাবাসের ভারপ্রাপ্ত কনসাল জেনারেল (জেদ্দা) মোকাম্মেল হোসেন কামরুলকে আটকের খবর নিশ্চিত করে জানান, যেহেতু কামরুলের নামে সৌদি আরবে কোনো মামলা নেই, তাই সৌদি পুলিশ তাকে আটকে রাখবে না। তাকে বাংলাদেশে পাঠানোর প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। 

এদিকে, সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার মো. রহমত উল্লাহ জানান, কামরুল ইসলামকে জেদ্দা পুলিশের সহায়তায় গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে দেশে ফেরত আনার প্রক্রিয়া চলছে।

গত বুধবার সিলেট নগরীর কুমারগাঁওয়ে সামিউলকে বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে বেঁধে নির্মমভাবে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়। তার লাশ গুম করার চেষ্টাকালে জনতার সহায়তায় পুলিশের হাতে আটক হয় হত্যাকারীদের অন্যতম মুহিদ আলম। 

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে নগরীর জালালাবাদ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলায় আটক মুহিদ আলম (২২) ও তার ভাই কামরুল ইসলাম (২৪), তাদের সহযোগী আলী হায়দার ওরফে আলী (৩৪) ও চৌকিদার ময়না মিয়া ওরফে বড় ময়নাকে (৪৫) আসামি করা হয়েছে।

এর মধ্যে কামরুল ইসলাম আগে থেকেই সৌদি প্রবাসী ছিল। সে গত ৬ রমজান দেশে এসেছিল। এরপর গত বুধবার রাজন হত্যাকাণ্ডের দুদিন পর শুক্রবার কামরুল দেশ ছেড়ে পালিয়ে যায়।

image

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ