Home > অন্যান্য > আইএসের দায় স্বীকার নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সংশয়

আইএসের দায় স্বীকার নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সংশয়

নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলাদেশে ‘কিছু হলেই’ আইএস-এর নামে দায় স্বীকারের যেসব বার্তা আসছে, তার পেছনে ‘অন্য কোনো উদ্দেশ্য’ থাকতে পারে বলে মনে করছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

তিনি আবারো বলেছেন, বাংলাদেশে ‘সাংগঠনিকভাবে’ আইএস-এর অস্তিত্ব থাকার কোনো প্রমাণ গোয়েন্দারা পাননি।

মন্ত্রী বলেন, ‘একটা কিছু হলেই তাৎক্ষণিকভাবে আইএস বিবৃতি দিচ্ছ।… প্রপাগান্ডা হতে পারে, উদ্দেশ্য থাকতে পারে। আমরা তদন্ত করছি। যারাই হরকাতুল জিহাদ, তারাই হুজি, তারাই জেএমবি, তারাই আনসারুল্লাহ, শিবির… সবই একসূত্রে গাঁথা।’

আশুরা উপলক্ষে তাজিয়া মিছিলের প্রস্তুতির মধ্যে শুক্রবার পুরান ঢাকার হোসাইনী দালান ইমামবাড়ায় বোমা হামলার দায় মধ্যপ্রাচের উগ্র গোষ্ঠী আইএস ‘স্বীকার করেছে’ বলে একটি খ্যাতিমান পর্যবেক্ষক সংস্থা খবর দেওয়ার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই বক্তব্য এল।

রবিবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা ষড়যন্ত্রের শিকার হচ্ছি। এখানে অন্য কোনো টেররিস্ট থাকতে পারে। তদন্ত করছি, শেষ হলে স্পষ্ট করে প্রকাশ করব। কে কার সঙ্গে জড়িত । খুব শিগগিরই জানাব।’

এর আগে গত ২৮ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ইতালীয় নাগরিক চেজারে তাভেল্লা এবং ৩ অক্টোবর জাপানি নাগরিক  কুনিও হোশি। খুন হওয়ার পরও আইএস ‘দায় স্বীকার’ করেছে বলে খবর দিয়েছিল ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ’।

তবে বাংলাদেশে কর্তৃপক্ষ ‘সাইটের’ তথ্য নিয়ে প্রশ্ন তুললেও আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে জিহাদি তৎপরতার খবর দিয়ে সংস্থাটি বেশ পরিচিত। আর এজন্যই বিশ্বের প্রভাবশালী গণমাধ্যমগুলো সাইটের তথ্যকে উদ্ধৃত করে প্রতিবেদন প্রকাশ করে থাকে।

ঢাকায় শিয়া সমাবেশে হামলার পর সাইট তাই আইএসের দায় স্বীকারের যে তথ্য প্রকাশ করেছে সাথে সাথে তা লুফে নিয়েছে রয়টার্স, নিউইয়র্ক টাইমস, এপিসহ বিশ্বখ্যাত সব গণমাধ্যম। বিশ্বের অন্যান্য দেশে জিহাদি হামলার ক্ষেত্রে তাই ঘটে থাকে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুনশি জানান, তাভেল্লা হত্যাকাণ্ডের তদন্ত ‘শেষ পর্যায়ে’ রয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে কমিটির সভায় জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, ঢাকায় যে বিদেশি নাগরিক খুন হয়েছে সেটার ব্যাপারে আমাদের তারা (পুলিশ) জানিয়েছে। তারা তদন্তের শেষ পর্যায়ে পৌঁছেছে। শিগগিরই বিষয়টি প্রকাশ করা হবে বলে তারা জানিয়েছে।’

তাভেল্লার খুনীরা চিহ্নিত হয়েছে কী না জানতে চাইলে সভাপতি বলেন, ‘তারা বলেছে প্রকৃত খুনীরা চিহ্নিত। দ্রুতই এ ব্যাপারে তারা জানাবে।’

তবে রংপুরে জাপানি নাগরিক কুনিও হোশি হত্যা রহস্যের কিনারা করতে ‘আরও সময় লাগবে’ বলে টিপু মুনশি জানান।

বিদেশি নাগরিক হত্যা ও হোসাইনী দালানে বোমা হামলার ঘটনা ‘একসূত্রে গাঁথা’ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিশিষ্ট গার্মেন্ট ব্যবসায়ী টিপু মুনশি আরো বলেন, ‘এগুলো সবই একসূত্রে গাঁথা। দেশের ভিতরে এবং আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের কারণে এসব ঘটনা ঘটছে। দেশকে অস্থিতিশীল করতে এসব ঘটানো হচ্ছে।’

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী
শিরোনামঃ