Home > জাতীয় > ‘ইসি নিয়োগে আইন জরুরি’

‘ইসি নিয়োগে আইন জরুরি’

ঢাকা: নির্বাচন কমিশনের সদস্য কারা হবেন তুঙ্গে ওঠেছে এই বিতর্ক। ঘনিয়ে আসছে নির্বাচনের সময়। সংবিধানে কমিশন গঠনে আইনের কথা থাকলেও ৪৪ বছরে কোন সরকারই নেয়নি সেই উদ্যোগ। বিতর্ক ও আস্থাহীনতা এড়াতে নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে আইন করা জরুরি মনে করেন আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারকেরাও।

সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্যান্য কমিশনারদের নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি। তবে তা হবে একটি আইনের বিধান মেনে। ১৯৭২ সালের সংবিধানে এ বিষয়টি থাকলেও ৪৪ বছরে কোন সরকারই এ বিষয়ক আইন পাশের উদ্যোগ নেয়নি। ১৯৯০, ১৯৯৬ ও ২০০৭ সালে নির্বাচন কমিশন গঠন হয় তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ইচ্ছেমতো।

অন্যান্য সময়ে ক্ষমতাসীন দলগুলো দলীয় বিবেচনায় প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ অন্যান্য কমিশনার নিয়োগ দিয়েছে। ব্যতিক্রম হয় ২০১২ সালে। তৎকালীন রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান, রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপ শেষে সার্চ কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠন করেন। একই পদ্ধতি অনুসরণ করছেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদও। তবে সরকারের নীতি-নির্ধারকরা বলছেন, সংবিধান মেনে নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন হওয়া উচিত।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বরাবরই বলে আসছেন, এ সংক্রান্ত আইন জরুরি নয়। তবে সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যরিষ্টার শফিক আহমেদ মনে করেন বিতর্ক এড়াতে আইনের কোন বিকল্প নেই। নির্বাচন কমিশনার নিয়োগে আইন হলে নির্বাচনী ব্যবস্থা নিয়ে জনমনে যে আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে তাও দূর হবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকেরা।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ