Home > জাতীয় > বাংলাদেশের মা ইলিশ ধরে নিয়ে যাচ্ছে ভারতের জেলেরা!

বাংলাদেশের মা ইলিশ ধরে নিয়ে যাচ্ছে ভারতের জেলেরা!

মা ইলিশ রক্ষায় ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত নদী ও সাগরে ইলিশ ধরা বন্ধ। পাশাপাশি ইলিশ মজুদ, বাজারজাত ও পরিবহনও সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার। তবে বাংলাদেশি জেলেরা মাছ ধরা বন্ধ রাখলেও ভারতীয়রা বাংলাদেশ অংশে অবৈধভাবে প্রবেশ করে ধরছে মা ইলিশ। এমনটাই অভিযোগ উপকূলীয় জেলেদের। ফলে মা ইলিশ রক্ষায় সরকারের উদ্যোগ সফল না হবার আশঙ্কা করছেন তারা।

পটুয়াখালী উপকূলের আলিপুর, মহিপুর, চর মোন্তাজ মৎস্য কেন্দ্রে এখন ইলিশ ধরার ট্রলারের দীর্ঘ লাইন। নদী ও সাগরে ইলিশ ধরা বন্ধ থাকায় হাজারো জেলে অলস সময় কাটাচ্ছেন। এ সময় ইলিশ না ধরলে আসছে বছর বেশি ইলিশ পাওয়া যাবে, এ আশায় বুক বেঁধে আছেন পটুয়াখালী উপকূলের জেলেরা। কিন্তু এ সুযোগে ভারতীয় জেলেরা বাংলাদেশের জলসীমায় ঢুকে নির্বিচারে ধরে নিয়ে যাচ্ছে মা ইলিশ।

পটুয়াখালীর এক জেলে বলেন, ১২ অক্টোবর থেকে ২ নভেম্বর ইলিশ ধরা বন্ধ। আমরাও এই নিয়ম মানি। কিন্তু আমাদের দেশে মা ইলিশ ধরা বন্ধ থাকলে কী হবে, ভারতের হাজার হাজার জেলে এসে মাছ ধরে নিয়ে যাচ্ছে। ওদের জন্য তো এ নিয়ম নেই।

এর ফলে মা ইলিশ রক্ষায় সরকারের উদ্যোগ সফল না হবার আশঙ্কা করছেন ওই অঞ্চলের জেলেরা। তবে এমন অভিযোগ মানতে নারাজ কর্তৃপক্ষ। তাদের দাবি, নদী ও সাগরে অভিযান অব্যাহত রয়েছে এবং উপকূলের পুরো জলপথ কঠোর নজরদারিতে রাখা হয়েছে।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন আরটিভিকে বললেন, ‘ভারতীয় কোনো জেলে বাংলাদেশে প্রবেশ করার সুযোগ নেই। কারণ এখানে নৌবাহিনীর টহল রয়েছে। তাদের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ করেছি। তারা তাদের টহল আরো জোরদার করবে বলে জানিয়েছে।’

কোস্ট গার্ড দক্ষিণ জোনের স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট দেবায়ন চক্রবর্তী বললেন, ‘যারা মাছ ধরার সঙ্গে লিপ্ত আছেন তাদেরকে আমরা আটক করেছি। এখন পর্যন্ত আমাদের জোন থেকে ১শ’ ১২ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে বিদেশি কাউকে পাইনি।’

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ইলিশের প্রজনন সময় আরো বাড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করেন পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্য বিজ্ঞান অনুচ্ছেদের ডিন মো. সুলতান আহমেদ। তিনি আরটিভিকে বলেন, ‘ভবিষ্যতে যদি ইলিশ না ধরার সময়টা বাড়ানো যায়, তাহলে এটি আরো বেশি ইফেক্টিভ হবে।’

ভারতীয় জেলেরা বাংলাদেশের জলসীমানায় ঢুকে যেন মা ইলিশ নিধন করতে না পারে- সে ব্যবস্থা নেয়া হবে এমনটাই দাবি পটুয়াখালীর উপকূলীয় জেলেদের।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ