Home > জাতীয় > ধর্মকে আঘাত মুক্তচিন্তা নয়, নোংরামি: প্রধানমন্ত্রী

ধর্মকে আঘাত মুক্তচিন্তা নয়, নোংরামি: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

জনতার বাণী,

ঢাকা: মুক্তচিন্তা প্রকাশের নামে কোনো ধর্মের মানুষের

অনুভূতিতে আঘাত সহ্য করবেন না বলে জানিয়েছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সকালে গণভবনে আওয়ামী লীগের

নেতাকর্মীরা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানাতে এলে তাদের

উদ্দেশে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমার ধর্ম আমি পালন করি, কিন্তু আমার

ধর্ম সম্পর্কে কেউ যদি নোংরা কথা লেখে, বাজে কথা

লেখে সেটা আমরা কেন বরদাশত করবো।’

শেখ হাসিনা বলেন, এখন একটা ফ্যাশন দাঁড়িয়ে গেছে যে

ধর্মের বিরুদ্ধে কিছু লিখলেই তারা হয়ে গেলো

মুক্তচিন্তা।

‘আমি তো এখানে মুক্তচিন্তা দেখি না, আমি এখানে দেখি

নোংরামি।’

তিনি বলেন, ‘যাকে আমি নবী মানি তার সম্পর্কে নোংরা

কেউ যদি লেখে সেটা কখনো আমাদের কাছে

গ্রহণযোগ্য না।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন নোংরা কথা, পর্ণ কথা এগুলো কেন

লিখবে ? এটা তো সম্পূর্ণ নোংরা মনের পরিচয়।

‘আবার একজন লিখলে আরেকজন খুন করে প্রতিশোধ

নিবে এটা তো ইসলাম ধর্ম বলেনি।’

তিনি বলেন বোমা মেরে মানুষ হত্যা করা বা মানুষের

জীবনের ওপর হুমকি দেয়া -এটা ধর্মে কোথায় বলা আছে?

‘যারা এ ধরণের হুমকি দেয় তারাই তো ধর্মকে অবমাননা

করে।’

পহেলা বৈশাখ উদযাপন বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, সকাল

থেকে বাংলা নববর্ষ উদযাপনে দেশবাসীর আনন্দ উদযাপন

দেখে ভাল লাগছে। বছরটা সুন্দরভাবে শুরু হয়েছে, এটা

যেন অব্যাহত থাকে।

তিনি বলেন, সবসময়ই দুঃশ্চিন্তায় থাকি, কখন কী ঘটে যায়। আশা

করি কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই আমরা পহেলা

বৈশাখ উদযাপন করতে পারব।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা বলেছি বিকেল পাঁচটার মধ্যে

প্রকাশ্য-বহিরাঙ্গনের অনুষ্ঠানগুলো শেষ করতে হবে।

এতেই কারো কারো আপত্তি। কিন্ত কেন? যেহেতু

আমাদের নিরাপত্তা দিতে হবে, কিছু প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই তা

সম্ভব। আমাদের একটা দায়িত্ব রয়েছে নিরাপত্তা নিশ্চিত করা,

সেটা কোন পথে কিভাবে দিতে পারবো, তার নির্দেশনা

সরকারই দেবে। আর আশা করি সকলেই এই নির্দেশনা

মেনে চলবে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ