Home > জাতীয় > সৌদি এয়ারলাইন্স অফিস বন্ধ, টিকিটের খোঁজে ভোগান্তিতে প্রবাসীরা

সৌদি এয়ারলাইন্স অফিস বন্ধ, টিকিটের খোঁজে ভোগান্তিতে প্রবাসীরা

‘আজ দুপুর ২টায় আমার ফ্লাইট ছিল। সকালে এয়ারপোর্ট যাওয়ার পর ওরা বলেছে, এই অফিসে আসতে। এখন এসে দেখি এয়ারলাইন্স অফিস বন্ধ। এখন আমি কী করবো?- গাইবান্ধার মনির উদ্দিনের এমন প্রশ্নের কোনো উত্তর নেই।

বগুড়া থেকে আসা রিয়াদ প্রবাসী যাত্রী সিরাজুল ইসলামের টিকিট বৃহস্পতিবার, ২৭ মে মধ্যরাতে। তিনি বুধবার এসেছেন তার হোটেল বুকিংয়ের টাকা এবং করোনা নেগেটিভের সার্টিফিকেট জমা দিতে। এসে দেখেন অফিস বন্ধ। উপরন্ত তার পকেটে থাকা ২ হাজার ৩০০ রিয়েল হাতিয়ে নিয়েছে পকেটমার!

হতাশ ভঙ্গিতে মন খারাপ করে সিরাজুল ইসলাম এই প্রতিবেদককে জানালেন, কাউকে বলতেও পারছি না। এতগুলো টাকা পকেট মার হয়ে গেল। এখন আশেপাশের কোনো হোটেলে রাত কাটাবো। কাল আবার আসবো টিকিট কনফার্ম করতে। কিভাবে কি করবো, কিছু বুঝে উঠতে পারছি না।

বুদ্ধ পূর্ণিমার কারণে বুধবার ২৬ মে অফিস বন্ধ। এ ব্যাপারে সৌদি প্রবাসীদের গতকালও কোন কিছু জানানো হয়নি। তাই যাদের আজ দুপুর এবং মধ্যরাতে ফ্লাইট ছিল, তেমন কয়েকশ যাত্রী সৌদি এয়ারলাইন্স অফিস গেটের বাইরে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেছেন।

প্রতিদিনের মতো বুধবার সকাল ১০টার আগে সৌদি প্রবাসীরা কারওয়ান বাজার হোটেল সোনারগাঁওয়ের সামনে ভিড় করেন। দশটার পরেও অফিসের দরজা খুলছে না দেখে তারা জানতে পারেন, বুদ্ধ পূর্ণিমার কারণে আজ এখানকার সৌদি এয়ারলাইন্স অফিস বন্ধ।

যাত্রীরা সবাই সার্ক ফোয়ারার সামনে প্রধান সড়কে অবস্থান নেয়। কিছু সময়ের জন্য রাস্তায় সব যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেলে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসে যাত্রীদের বুঝিয়ে রাস্তা থেকে ফুটপাতে সরিয়ে দেন।

এই প্রতিবেদকের কাছে অভিযোগ অনুযোগে ফেটে পড়লেন সৌদিগামী যাত্রীরা। জেদ্দা প্রবাসী যাত্রী মনোয়ার হোসেন বললেন, আজ আমার ফ্লাইট ছিল, সেই ব্যাপারে আগামীকাল এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত না দিলে বা টিকিট বাতিল হলে, মরে যাওয়া ছাড়া কোনো রাস্তা নেই। স্ত্রীর গহনা বন্ধক দিয়ে হোটেলে কোয়ারেন্টাইনের জন্য ৫৫ হাজার টাকা গতকাল জমা দিয়েছি। এখন এসে দেখি অফিস বন্ধ। তারা আমাদের জানানোর প্রয়োজনও মনে করেনি। এরা সবসময় আমাদের সঙ্গে অমানুষের মতো আচরণ করে। এসব দেখার যেন কেউ নেই। টাকা দিচ্ছি। অথচ তারা প্রতিনিয়তই আমাদের তুচ্ছ-তাচ্ছিল্যে করে। মনে হয় তারা যেন আমাদের করুণা করছে!

প্রতিদিনই সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে কেন এমন আচরণ এ প্রসঙ্গে জানতে সৌদি এয়ারলাইন্সের ভারপ্রাপ্ত ম্যানেজার মো. শাহ ফয়সালের সঙ্গে যোগাযোগ করেও সাড়া মেলেনি।

উল্লেখ্য, সৌদি এয়ারলাইন্সের ঢাকা অফিসের ম্যানেজার জাহিদুল আবেদীন গত ১৫ দিন থেকে ছুটিতে আমেরিকাতে আছেন। তিনি আগামী ১ জুন থেকে অফিস করবেন বলে জানা গেছে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী
শিরোনামঃ