Home > জাতীয় > খেতের সীমানা ‘আল’ উঠিয়ে সারাদেশে যৌথ খামার হবে

খেতের সীমানা ‘আল’ উঠিয়ে সারাদেশে যৌথ খামার হবে

কৃষিজমি কমে যাওয়ার প্রেক্ষিতে মালিকানার সীমানা নির্ধারনী ‘আল’ উঠিয়ে দিয়ে সম্মিলিত চাষাবাদ চালুর কথা ভাবছে সরকার।

মালিকানার সীমানা বিভাজক, স্থানীয় ভাষায় যাকে ‘আইল, বলা হয়, সেগুলোর উঠানোর এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম ।

তিনি কুমিল্লায় এমন এক পাইলট প্রকল্পের উদ্বোধনের সময় বলেন, ‘সমবায়ের ভিত্তিতে জমির আইল উঠিয়ে সম্মিলিত চাষাবাদ পদ্ধতি ১৯৭৫ সালেই বঙ্গবন্ধু পরিকল্পনা করেছিলেন। দীর্ঘ বছর পর বঙ্গবন্ধুর দর্শনই আমরা আজ বাস্তবায়ন করছি।’

জেলার লাকসাম উপজেলার নোয়াপাড়ায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমির (বার্ড) গৃহীত “কৃষির যান্ত্রিকীকরণ ও যৌথ খামার ব্যবস্থাপনা” শীর্ষক প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

এসময় স্থানীয় কৃষকদের সাথে মতবিনিময় করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘জমির আল উঠিয়ে সমবায়ভিত্তিক চাষাবাদ সারাদেশে কৃষকদের দারিদ্র্য বিমোচন ও অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জনে ভূমিকা রাখবে। সনাতন পদ্ধতিতে চাষাবাদের ফলে সরকারের সব ধরনের ভর্তুকীর পরও সাম্প্রতিক বছরগুলোতে কৃষকরা তাদের পণ্যের ন্যয্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছিলেন। এ পরিস্থিতিতে কৃষির উৎপাদন ব্যয় হ্রাসের উপায় উদ্ভাবন অত্যন্ত জরুরি হয়ে পড়েছিল। আধুনিক কৃষি যন্ত্রপাতির ব্যবহার করে যৌথ খামার প্রতিষ্ঠার ফলে কৃষি পণ্যের উৎপাদন খরচ হ্রাস পাবে এবং কৃষি হবে কৃষকের জন্য একটি লাভজনক জীবিকা। এছাড়াও আমার বিশ্বাস, পরীক্ষামূলক এ প্রকল্পটি একটি উন্নয়ন মডেল হিসাবে দাঁড়াবে এবং কৃষিতে আরেকটি নতুন বিপ্লব সূচিত হবে।’

বার্ড, কুমিল্লা কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন এ প্রকল্পের আওতায় ডিজিটাল ভূমি জরিপের মাধ্যমে লাকসাম উপজেলার কান্দিরপাড় ইউনিয়নের নোয়াপাড়া ও ছনগাঁও গ্রামের যৌথ খামার প্রতিষ্ঠায় আগ্রহী ৭৫ জন কৃষকের ৪০ একর কৃষিজমির সীমানা নির্ধারণ করা হয়েছে। নির্বাচিত ৪০ একর কৃষিজমির ১৪১টি প্লটের আল উঠিয়ে একত্র করে চলমান বোরো মৌসুমে ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধান রোপন করা হচ্ছে।

স্থানীয় চেয়ারম্যান ওমর ফারুকের সভাপতিত্ব করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো. রেজাউল আহসান, কুমিল্লা বার্ডের মহাপরিচালক মো. শাহজাহান।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ