Home > জাতীয় > ঘটনাস্থলে না থাকলেও পুরো ঘটনায় জড়িত অমিত সাহা

ঘটনাস্থলে না থাকলেও পুরো ঘটনায় জড়িত অমিত সাহা

শিবির কর্মী সন্দেহেই অ’ত্যাচার করা হয় আবরারকে, সহযোগীদের নাম জানতে দীর্ঘায়িত হয় নি’র্যাতন। হ’ত্যা মা’মলায় রি’মান্ডে থাকা আসামীদের কাছ থেকে এমন তথ্য পেয়েছে গো’য়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে ১৫ জনকে। সবশেষ রাজধানীর সবুজবাগ ও বুয়েট থেকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে অমিত সাহা মিজান নামের দুজনকে। রাজনোইতিক কিংবা সামজিক পরিচয় এ মা’মলায় বিবেচ্য হবে না বলেও দাবি গো’য়েন্দা পুলিশের।

বুয়েটের ছাত্র আবরার ফাহাদ হ’ত্যা মা’মলায় সোমবার বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাসেলসহ ১০ জনকে গ্রে’প্তার করে পুলিশ। এরপর আরও দুজনকে গ্রে’প্তার করে সবাইকে ৫ দিন করে রি’মান্ডে নেয়া হয়।

চকবাজার থানায় আবরারের বাবার দয়ের করা মা’মলায় আ’সামি করা হয় ১৯ জনকে। তবে এর মধ্যে অমিত সাহা, মিজান ও রাফাতের নাম না থাকলেও ত’দন্তে তাদের সম্পৃক্ততা পাওয়ায় গ্রে’প্তার করা হয়।

ডিএমপির মুখপাত্র মনিরুল ইসলাম বলেন, সমস্ত আলামত বিশ্লেষণ এবং অন্যান্য সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে আমাদের মনে হয়েছে অমিত সাহা ঘটনাস্থলে হয়তবা ছিলো না কিন্তু এ ঘটনায় তার দায়-দায়িত্ব রয়েছে। প্রতোক্ষ্য না হলেও পরোক্ষ দায়-দায়িত্ব রয়েছে। সে কারণেই প্রাথমিক তত্ত্বে তাকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে।

শিবির সন্দেহে আবরারকে নি’র্যাতন করা হয় বলেও প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে ডিবি। তবে ত’দন্তের স্বার্থে কিছু বি’ষয় গোপন রাখছেন গো’য়েন্দারা।

মনিরুল ইসলাম বলেন, এটিও একটি কারণ বলে আমরা জানতে পেরেছি। কিন্তু এটিই একমাত্র কারণ কিনা এটি এ পর্যায়ে বলাটা আসলে সমুচিত না। কে কোন দলে, কার কি পদ পদবি এগুলো দেখা হচ্ছে না। কারও সামাজিক অবস্থানও ত’দন্ত ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার না করে সেজন্য আমাদের চৌকস টিম কাজ করছে।

নৃশংস এই হ’ত্যার বি’ষয়ে কারো কাছে কোনো তথ্য থাকলে পরিচয় গোপন রেখে ত’দন্তকারীদের জানাতে অনুরোধ করেন ডিএমপির মুখপাত্র মনিরুল ইসলাম।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ