Home > জাতীয় > ‘পুলিশ-সাংবাদিকদের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয়’

‘পুলিশ-সাংবাদিকদের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করতে হয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, সাংবাদিকদের কাজ বিশেষ করে ক্রাইম রিপোর্টারদের কাজ আর পুলিশের কাজ একই। আমরা যে ঝুঁকি নিয়ে কাজ করি তেমনটি অন্য কোন পেশায় নেই। সাংবাদিক আর পুলিশের কোন কর্মঘন্টা নেই। প্রায় সময় আমাদের ২৪ ঘন্টা কাজ করতে হয়।

মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে সাংবাদিক আব্দুস সালাম মিলনায়তনে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোশিয়েশনে (ক্র্যাব) সাময়িক গ্রুপ জীবন বীমার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘যখন চকবাজারে আগুন লাগে তখন অনেক রাত। শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিক, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস যৌথভাবে চকবাজারে কাজ করে। যেখানেই আগুন লেগেছে সেখানেই এই তিন পেশার মানুষ একসাথে ছুটে গেছে; ছুটে যায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। আমাদের জীবন অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। সেজন্য আমাদের সামাজিক নিরাপত্তা অত্যন্ত জরুরি।’

ডিএমপি কমিশনার আরও বলেন, ‘সাংবাদিকদের যেমন অনেক সমস্যা রয়েছে তেমন পুলিশের মধ্যেও অনেক সমস্যা রয়েছে। পুলিশের প্রচুর সদস্য প্রতি মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায়। প্রাণ হারানো পুলিশ সদস্যের পরিবার নিঃস্ব হয়ে যায়।’

তিনি বলেন, ‘সাংবাদিকদের সাথে অনেক সময় সম্পর্ক খারাপ হয়, অনেক সময় ধাক্কাধাক্কি হয় কিন্তু আমাদের এই দুই পেশার মানুষদের থাকতে হয় একসাথেই। এক সময় হলুদ সাংবাদিকতা ছিলো। এখন শুধু কাগজে কলমে আছে, বাস্তবে নেই।’

জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, ‘আমরা সাংবাদিকরা অন্যের কথা যে ভাবে লিখি, অন্যের কথা বলি, অন্যের পাশে দাঁড়াই। কিন্তু সময়ের কারণে আমরা নিজেদের ব্যপারেই উদাসীন। আমরা এমন একটা অনিশ্চিত পেশায় আছি যখন অসুস্থ হয়ে যাই, তখন চিকিৎসার টাকাও জোগাড় করতে পারিনা। তখন নানা ধরনের কল্যাণফান্ড খুঁজতে হয়। মানুষের কাছে টাকা-পয়সা চাইতে হয়। সাংবাদিকদের এই সময়ে ক্র্যাব একটি ভালো উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। আজকের এই ঐতিহাসিক চুক্তিটি অবশ্যই প্রশংসনীয়। প্রতিটি সাংবাদিকদের বীমা থাকা উচিত। যাতে দুঃসময়ে কারও কাছে হাত পাততে না হয়।

ক্র্যাব সভাপতি আবুল খায়ের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ক্র্যাবের সাধারণ সম্পাদক দীপু সারোয়ার। বক্তব্য রাখেন সানলাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানির কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন সোহাগ।

উপস্থিত ছিলেন ক্র্যাবের প্রাক্তন সভাপতি মধুসূদন মন্ডল, খায়রুজ্জামান কামাল, সিনিয়র সাংবাদিক গাফফার মাহমুদ, ক্র্যাব সহসভাপতি মিজান মালিক, ক্র্যাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কামরুজ্জামান খান।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ