Home > জাতীয় > কাস্টমসে কর্মবিরতি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে এনবিআরের চিঠি

কাস্টমসে কর্মবিরতি, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে এনবিআরের চিঠি

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক: সিলেটের তামাবিল স্থলবন্দরে যাত্রীর ব্যাগেজ তল্লাশিকে কেন্দ্র করে কাস্টমসের কর্মকর্তা-কর্মচারীর ওপর হামলার ঘটনার প্রতিবাদ ও বিচারের দাবিতে সারাদেশে একযোগে চার ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করেছে কাস্টমস হাউসগুলো।

বিসিএস (কাস্টমস এক্সাইজ অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশন, কাস্টমস এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট এক্সিকিউটিভ অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাকাএভ) এবং বাংলাদেশ কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট তৃতীয় শ্রেণির নির্বাহী কর্মচারী সংঘের (বাকাস) আহ্বানে এই কর্মসূচি পালন করা হয়।

বুধবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এ কর্মবিরতি পালন করা হয়। হামলার ঘটনায় কাস্টমসের (শুল্ক) ৬ কর্মকর্তা ও কর্মচারী আহত হয়েছেন বলে কাস্টমস কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে।

কর্মবিরতির বিষয়টি নিশ্চিত করে বিসিএস (কাস্টমস এক্সাইজ অ্যান্ড ভ্যাট) অ্যাসোসিয়েশন, কাস্টমস এক্সাইজ এন্ড ভ্যাট এক্সিকিউটিভ অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বাকাএভ) মহাসচিব সৈয়দ মুশফিকুর রহমান রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘আজ তামাবিলসহ দেশের সকল কাস্টমস হাউসে একযোগে কর্মবিরতি পালন করা হয়েছে। এছাড়া আমরা এ বিষয়ে আশু পদক্ষেপ চেয়ে এনবিআর, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বিজিবি ও সংশ্লিষ্ট দপ্তরে চিঠি পাঠিয়েছি। তাছাড়া মঙ্গলবার এনবিআর থেকেও ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্বরাষ্ট্রসচিব বরাবর চিঠি দেওয়া হয়েছে। এখন ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের পদক্ষেপের ওপর আমাদের ভবিষ্যত কর্মসূচি নির্ভর করছে।’

এ বিষয়ে অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা জানান, গত ৬ ডিসেম্বর বিকেলে তামাবিল চেকপোস্ট হয়ে ভারত থেকে কয়েকজন পাসপোর্টধারী যাত্রী বাংলাদেশে আসছিলেন। এসময় কাস্টমস তল্লাশির আগে শূণ্য রেখায় অনিয়ম করে বিজিবি সদস্যরা যাত্রীদের ব্যাগে তল্লাশি চালান। এতে কাস্টমস সদস্যরা আপত্তি জানালে এক পর্যায়ে বিজিবি সদস্যরা কাস্টমস সদস্যদের উপর হামলা চালিয়ে ৬ জনকে গুরুতর আহত করেন। এ ঘটনার পর হামলাকারী বিজিবি সদস্যদের বিচারের দাবি করা হয়েছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত তাদের পক্ষ থেকে কোনো সন্তোষজনক সাড়া পাওয়া যায়নি। এর প্রতিবাদে সারাদেশ একযোগে কাস্টমসের প্রতিটি দপ্তরে বুধবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত ৪ ঘণ্টা কর্মবিরতি পালন করা হয়।

সিলেটের তামাবিল কাস্টমসের কর্মকর্তাদের ওপর বিজিবি সদস্যদের হামলা এবং কাস্টমস কর্মকর্তাদেরকে মারধর করে রক্তাক্ত করার ঘটনায় এনবিআর চেয়ারম্যান মোঃ মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া তীব্র নিন্দা জানান।

ভ্যাট দিবসের এক অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘সামান্য ভুল বোঝাবুঝিকে কেন্দ্র করে সিলেটের তামাবিল শুল্ক স্টেশনে আমাদের কাস্টমস কর্মকর্তাদেরকে বিজিবি’র সদস্যরা মারধর করেছে। তাদেরকে রক্তাক্ত করেছে। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। অবশ্যই আমরা এর প্রতিকার চাই। আমি মাননীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবো। তাঁর কাছে বিজিবির সদস্যদের বিচার চেয়ে লিখবো।’

কর্মকর্তাদের ধৈর্য্য ধারণ করার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, ‘সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। তাই সরকারকে কোনোভাবেই বিব্রত করা ঠিক হবে না। ভবিষ্যতে আর যেন এরকম ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে সে জন্য কর্তৃপক্ষকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ