Home > জাতীয় > ক্ষুদ্রঋণে বিপর্যস্ত দরিদ্র জনজীবন

ক্ষুদ্রঋণে বিপর্যস্ত দরিদ্র জনজীবন

এফ আর রাসেল, জনতারবাণী : দরিদ্র জনগোষ্ঠীর উন্নয়নের জন্য হাতে নেয়া হয়েছে ক্ষুদ্রঋণ কার্যক্রম । সেইলক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ক্ষুদ্রঋণ প্রদানকারী বিভিন্ন এনজিও । তাদের লক্ষ্য দেশ থেকে দারিদ্রতা দূর করা । সেই লক্ষ্যে দেশব্যাপী কাজ করছেন ক্ষুদ্রঋণ প্রদানকারী বিভিন্ন এনজিও । দেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে এইসব এনজিও । শহরাঞ্চল থেকে গ্রামাঞ্চল এমনকি প্রত্যন্ত দুর্গম এলাকায়ও স্থাপন করা হয়েছে তাদের শাখা-প্রশাখা । এইসব এনজিওগুলো সেই লক্ষ্য বাস্তবায়ন করার জন্য বিতরণ করে চলেছেন কোটি কোটি টাকার ঋণ । বছরশেষে গুণছেন তারা কোটি কোটি টাকার মুনাফা । সেই সাথে বহু শিক্ষিত বেকার নারী পুরুষের কর্মসংস্থান নিশ্চিত হচ্ছে । কিন্ত যাদের জন্য এত আয়োজন-উদ্যোগ, তাদের কি কোনো পরিবর্তন হচ্ছে ? তারা কি মুক্তি পাচ্ছেন দারিদ্রতা থেকে ? এটিই হলো ভাববার বিষয় ! অনুস‌ন্ধান করে দেখা গেছে ১০০% ঋণ গ্রহণকারী ব্যক্তির মধ্যে ৯৫% ঋণ গ্রহণকারী ব্যক্তিই ঋণের টাকা নির্দিষ্ট খাতে ব্যয় না করে অন্য খাতে ব্যয় করেন । ফলে ঋণের টাকা নিয়ে দারিদ্রতা দূর করার পরিবর্তে তারা নতুনভাবে জড়িয়ে পড়েন সুদের জালে আর সারাবছর ধরে টানতে হয় সেই ঋণের ঘানি । বছর বছর বেড়ে চলে ঋণের পরিমাণ । তখন একটি এনজিওর ঋণ পরিশোধ করতে গিয়ে অপর আরেকটি এনজিও থেকে ঋণ গ্রহণ করেন । এভাবে দেখা যায়, এক একজন ব্যক্তি ১০-১২ টি এনজিওর সদস্য । ফলে দিনদিন বেড়ে চলে তার ঋণের পরিমাণ, সেইসাথে সুদের পরিমাণ । ঋণের টাকায় স্বাবলম্বী হওয়ার পরিবর্তে ঋণের বোঝায় জর্জরিত হয়ে দরিদ্র থেকে আরো বেশি দরিদ্র হন ঋণ গ্রহণকারী ব্যক্তিগণ । ফলে তাদের জীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়ে । সংসারে নেমে আসে দুঃখ-কষ্ট । ফলে বহু ঋণ গ্রহণকারী ব্যক্তি এই ঋণ থেকে মুক্তিলাভের জন্য আত্মহত্যার পথ বেছে নেন । আবার অনেকে ঋণ পরিশোধ করতে না পেরে একসময় বাড়িঘর ছেড়ে পালিয়ে যান ঢাকা শহরে । সেখানে গিয়ে গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে শ্রমিকের চাকুরি নিয়ে বস্তিতে বসবাস করেন । আর অতিবাহিত করেন দুর্বিষহ দরিদ্র জীবন ।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ