Home > জাতীয় > মায়ের মৃত্যুবার্ষিকী আজ, স্বামীর জন্মদিন কাল; আদালতে দৌড়াচ্ছেন খালেদা

মায়ের মৃত্যুবার্ষিকী আজ, স্বামীর জন্মদিন কাল; আদালতে দৌড়াচ্ছেন খালেদা

নিউজডেক্স, জনতার বাণী : বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মাতা বেগম তৈয়বা মজুমদারের দশম মৃত্যুবার্ষিকী বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি)। কিন্তু মায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর দিনই আদালতে হাজিরা দিতে এসেছেন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী।

এছাড়া আগামীকাল শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) খালেদা জিয়ার প্রয়াত স্বামী ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী।

২০০৮ সালের এই দিনে তার মাতা তৈয়বা মজুমদার ইন্তেকাল করেন। কিন্তু মায়ের মৃত্যুবার্ষিকী দিনেও জিয়া অরফানেজ ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে আজ দুপুর ১২টায় আদালতে পৌঁছেছেন খালেদা জিয়া।

এর আগে সকাল ১১টা ২০ মিনিটে গুলশানের বাসা থেকে আদালতের উদ্দেশে রওনা দেন তিনি। বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেন। ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ ড. আখতারুজ্জামানের আদালতে দুর্নীতির দুই মামলায় দ্বাদশ দিনের মতো যুক্তিতর্ক চলছে।

এর আগে গতকাল বুধবার যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের সময় আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে তার মায়ের মৃত্যুবার্ষিকীর জন্য মামলার হাজিরা থেকে অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করেন আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া। এরপর আদালত আবেদন মঞ্জুর করলেও অন্য আসামিদের পক্ষে আদালত চলবে বলে আদেশ দেন।

এসময় দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, খালেদা জিয়ার মায়ের মৃত্যুবার্ষিকী এটা যেহেতু ধর্মীয় বিষয় সেহেতু আমাদের কোনো আপত্তি নেই।

তখন খালেদা জিয়া জানান, যেহেতু আদালত চলবে, সেহেতু তিনি আদালতে যাবেন। এই মামলাটি আমি আইন দিয়ে মোকাবেলা করছি, তাই আগামীকালও আদালতে আসবো।

এদিন এ মামলার আসামি কাজী সলিমুল হক ও শরাফ উদ্দিনের পক্ষে যুক্তিতর্ক তুলে ধরেন তাঁদের আইনজীবী আহসান উল্লাহ। এর আগে মঙ্গলবার ১০ম দিনের মতো জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন শেষ করেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

খালেদা জিয়ার পক্ষে এর আগে অ্যাডভোকেট আব্দুর রেজ্জাক খান, অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার এজে মোহাম্মদ আলী, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার ও ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ যুক্তি উত্থাপন করেছেন।

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের নামে এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় প্রথম মামলাটি করা হয়। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় একটি মামলা করে দুদক।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ