Home > জাতীয় > ভারতে সব গেট হঠাৎ খুলে দেয়ায় ডুবে যাচ্ছে বাংলাদেশ !

ভারতে সব গেট হঠাৎ খুলে দেয়ায় ডুবে যাচ্ছে বাংলাদেশ !

কুড়িগ্রামে ধরলা নদীর বাঁধ কেন ভেঙে গেছে, তার ব্যাখ্যা দিয়েছেন জেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা। তারা বলেছেন, ইঁদুরের গর্ত আর উইপোকার ঢিবির কারণে বাঁধ দুর্বল হয়ে ভেঙে পড়েছে এবং বানের জলে ভেসে গেছে।

তবে স্থানীয়রা তাদের এই যুক্তিকে হাস্যকর বলে মন্তব্য করেছেন। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, গত ১৫ বছরেরও বেশি সময় ওই বাঁধে কোনো সংস্কার কাজ চালানো হয়নি। ফলে বাঁধ দুর্বল হয়ে গেছে। ইঁদুর আর উইপোকার ঘাড়ে দোষ চাপানোটা হাস্যকর। নিজেদের গাফিলতি ঢাকতেই তারা এই যুক্তি দাঁড় করাচ্ছেন।

Elephant Flood

আর বাঁধ যে ১৫ বছর ধরে মেরামত করা হয়নি, সে বিষয়টি স্বীকার করেছেন বোর্ডের কর্মকর্তারা।

এবার বন্যার পানির চাপে সদর এবং রাজারহাট উপজেলায় বাঁধের দুটি অংশের প্রায় ৮০ মিটার ভেসে গেছে।

সরকারি কর্মকর্তারা জানাচ্ছেন, ধরলা নদীর পানি বিপদসীমার ১৩২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে বইছে।

বাঁধের যে অংশ দুটি ভেঙে পড়েছে সেখানে দুই পাশে পানির উচ্চতার তফাৎ ১০ ফুটেরও বেশি ছিল।

উপসহকারী প্রকৌশলী মো. আসাদুজ্জামান বলেন, “এমনিতেই বাঁধ ছিল দুর্বল, তাই পানির চাপ আর সহ্য করতে পারেনি।”

কুড়িগ্রামের বিভিন্ন জায়গায় সড়কে পানি ওঠায় সড়ক ও রেল যোগাযোগও বন্ধ হয়েছে।

কুড়িগ্রামের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বাঁধের কাঠামোগত দুর্বলতার পেছনে তিনটি কারণ উল্লেখ করেন। এক. বাঁধের ওপর এবং আশেপাশে হাজার হাজার মানুষ বসবাস করছেন। এদের অনেকেই বাঁধের মাটি কেটে বাড়িঘর তুলেছেন। দুই. বাঁধের আশেপাশের ধান শুকাতে দেয়া হয়, ফলে খাবারের আশায় হাজার হাজার ইঁদুর বাসা তৈরি করেছে বাঁধের ভেতরে। তিন. বাঁধের ভেতরে অনেক জায়গায় বড় বড় উইপোকার ঢিবিও রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এসব সমস্যা থাকার পরও গত প্রায় ১৫ বছর ধরে এসব বাঁধে বড় ধরনের কোন মেরামত বা সংস্কার হয়নি।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ