সীমিত পরিসরে চলবে ব্যাংক, লেনদেন ৪ ঘণ্টা

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আরোপিত বিধি-নিষেধের মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার। তা চলবে আগামী ২৩ মে পর্যন্ত। এ সময়ে সীমিত পরিসরে চলবে ব্যাংকিং কার্যক্রম। লেনদেন চলবে ৪ ঘণ্টা।

রোববার (১৬ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছে। ব্যাংক কোম্পানি আইন, ১৯৯১ এর ৪৫ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে এ নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

নতুন এ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ব্যাংকগুলোতে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত লেনদেন হবে। লেনদেন-পরবর্তী আনুষঙ্গিক কার্যক্রম শেষ করতে বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত ব্যাংক খোলা থাকবে।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, ব্যাংকিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখার বিষয়ে ২০২১ সালের ১৩ এপ্রিল নির্দেশনা জারি করা হয়। পরে ২০ ও ২৮ এপ্রিল এবং ৫ মে সীমিত পরিসরে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালনার সময়সীমা ১৬ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়। ১৬ মে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান বিধিনিষেধ আগামী ২৩ মে পর্যন্ত বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বিধিনিষেধের সময় ব্যাংকিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে ১৭ থেকে ২৩ মে পর্যন্ত সীমিত পর্যায়ে ব্যাংকিং কার্যক্রম পরিচালিত হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ১৩ এপ্রিল জারি করা ডিওএস সার্কুলারে প্রদত্ত অন্যান্য নির্দেশা অপরিবর্তিত থাকবে। অর্থাৎ প্রতিটি ব্যাংকের উপজেলা শহরের একটি শাখা খোলা থাকবে বৃহস্পতিবার, রোববার ও মঙ্গলবার। সিটি করপোরেশনের এলাকার দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা প্রতি কর্মদিবস খোলা রাখতে হবে।

%d bloggers like this: