মানুষের সমস্যার কথা সরকারকে জানান, নেতাদের প্রধানমন্ত্রী

জনগণের সমস্যা ও সুবিধা-অসুবিধার কথা সরকারের কাছে তুলে ধরার জন্য দলের নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ কেবল একটি রাজনৈতিক দল নয়, একটি প্রতিষ্ঠান। দলের দায়িত্ব হচ্ছে জনগণের সুবিধা-অসুবিধা সরকারের কাছে পৌঁছে দেওয়া। সরকারকে মানুষের সমস্যার কথা জানানো। শুক্রবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতিমণ্ডলীর প্রথম বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন। শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘জাতির পিতা আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। এখন আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জন করতে হবে। এই লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে চলেছি। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ এবং এ দেশের মানুষ যেন আবারও মাথা উঁচু করে চলতে পারে—এটাই আমরা চাই।’ ২২ ও ২৩ অক্টোবর দলের সম্মেলনের কথা উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, ‘এটি অত্যন্ত সফল সম্মেলন হয়েছে। এই সম্মেলনে দেশি-বিদেশি অতিথিরা এসেছেন, তাঁরা প্রত্যেকেই আমাদের উন্নয়ন ও আর্থসামাজিক অবস্থার প্রশংসা করেছেন।’ ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয় এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তোলার দৃঢ়প্রত্যয়ের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, কাজী জাফরউল্যাহ, সাহারা খাতুন, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, আব্দুর রাজ্জাক, মুহাম্মদ ফারুক খান প্রমুখ। দলের সদ্যবিদায়ী সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম পারিবারিক কাজে লন্ডন যাওয়ায় বৈঠকে যোগ দিতে পারেননি। প্রধানমন্ত্রীর সূচনা বক্তব্যের পরপরই তাঁর সভাপতিত্বে রুদ্ধদ্বার বৈঠক শুরু হয়। রাত নয়টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বৈঠক চলছে।

%d bloggers like this: