কুমিল্লায় হত্যার দায়ে চারজনের যাবজ্জীবন

কুমিল্লায় মাইক্রোবাস চালক রৌশন আলীকে অপহরণ করে গলা কেটে হত্যার দায়ে চারজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

আজ বুধবার বিকেলে এ আদেশ দেন কুমিল্লার জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক এম আলী আহমেদ।

যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার বড় ভৈষখোলা গ্রামের ওমর আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর, জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার প্রতাবপুর গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের ছেলে সুমন, একই জেলার আদর্শ সদর উপজেলার মাঝিগাছা গ্রামের মো. বাহার মিয়া খলিফার ছেলে আব্দুল জলিল মিয়া ও চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চাঁনশ্রী গ্রামের ছিদ্দিকুর রহমানের ছেলে মোশারফ হোসেন।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ১৯৯৮ সালের ১১ অক্টোবর বিকেল ৫টায় কুমিল্লা নগরীর বিষ্ণুপুরের আবুল কাসেমের ছেলে গাড়ির চালক মো. রৌশন আলী ভাড়ায় যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। পরবর্তীতে আসামিরা মো. রৌশন আলীকে অপহরণ করে মাইক্রোবাস নিয়ে যান এবং পরে তাকে হত্যা করেন।

২০০০ সালের ১৬ জানুয়ারি মামলার তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই কাজী মাহবুবুর রহমান ও এস আই মো. মোশারফ হোসেন।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এপিপি অ্যাডভোকেট মো. নূরুল ইসলাম এবং আসামিপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ফারুক আহম্মদ।

%d bloggers like this: