Home > বিনোদন > এটি হয়তো আমার জীবনেরও গল্প: ঋতুপর্ণা

এটি হয়তো আমার জীবনেরও গল্প: ঋতুপর্ণা

ভারতীয় বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় জুটি প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। এই জুটির প্রথম চলচ্চিত্র ‘নাগপঞ্চমী’ মুক্তি পায় ১৯৯৪ সালে। তারপর অনেক জনপ্রিয় বাংলা সিনেমা উপহার দিয়েছেন রোমান্টিক এই জুটি। ২০০২ সালে এই জুটির অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ‘প্রতিহিংসা’ মুক্তি পায়। তারপর সময়ের সঙ্গে অনেক কিছুই পাল্টে গেছে। মাঝে ১৪ বছর একসঙ্গে কোনো সিনেমায় দেখা যায়নি তাদের।

দীর্ঘ ১৪ বছরের বিরতি ভেঙে ‘প্রাক্তন’ সিনেমার মাধ্যমে একসঙ্গে পর্দায় ফেরেন তারা। নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখার্জি পরিচালিত এ সিনেমা ২০১৬ সালের ২৭ মে মুক্তি পায়। মুক্তির পর দর্শকমহলে দারুণ সাড়া ফেলে এটি। এ সিনেমা এখনো অনেককে আবেগতাড়িত করে বেড়ায়। বৃহস্পতিবার (২৭ মে) সিনেমাটি মুক্তির পাঁচ বছর পূর্ণ হয়েছে।

ঋতুপর্ণা বর্তমানে সিঙ্গাপুরে অবস্থান করছেন। দূর দেশে থেকেও এ সিনেমা নিয়ে নানা কথা জানিয়েছেন ভারতীয় সংবাদমাধ‌্যমে। এখনো এ সিনেমার শুটিংয়ে স্মৃতি তাকে তাড়া করে। ঋতুপর্ণা বলেন—‘পাঁচ বছর আগে অভিনয় করতে করতে বুঝেছিলাম, এই সিনেমা অনেকের জীবন বদলে দেবে। এমন একটা সিনেমার সঙ্গে জড়িত ছিলাম, যে সিনেমা আক্ষরিক অর্থেই ‘লোকশিক্ষা’ দিয়েছিল। ‘প্রাক্তন’ দেখতে দেখতে বহু দম্পতি নাকি চোখের জলে ভিজেছেন। কানে এসেছে। বহুজন বাড়ি ফিরে মিটিয়ে নিয়েছেন নিজেদের মধ্যে জমে থাকা রাগ, অসন্তোষ, ভুল বোঝাবুঝি। এসব জেনে ভালো লেগেছে।’

‘প্রাক্তন’ সিনেমার গল্প ঋতুপর্ণার জীবনেরও গল্প। তা উল্লেখ করে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘পাঁচ বছর পরে এ সিনেমার কথা ভাবতে ভাবতে বুঝতে পারছি, কেন এত সফল ‘প্রাক্তন’! নন্দিতাদি-শিবু সিনেমায় দাম্পত্যের গল্প বলেছেন। যেখানে দাম্পত্য কলহও ছিল। সংসার ভাঙার ব্যথাও বাদ যায়নি। এই গল্প কমবেশি সব মেয়েরই জীবনের গল্প। হয়তো আমারও। তাই পাঁচ বছর পরেও আমাদের ‘প্রাক্তন’ সবার কাছে ভীষণ বর্তমান।’

এক যুগের বেশি সময় পর প্রসেনজিতের সঙ্গে অভিনয় প্রসঙ্গে কথা বলেছেন ঋতুপর্ণা। এ অভিনেত্রী বলেন—‘এই সিনেমার হাত ধরেই ১৪ বছর পর আমি আর বুম্বাদা মানে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ফের জুটি হয়ে পর্দায় ফিরেছিলাম। আপনারা, দর্শকরা চেয়েছিলেন বলেই এটা সম্ভব হয়েছিল। সম্ভব হয়েছিল চিত্রনাট্যের দাবিতে। সম্ভব হয়েছিল পরিচালক জুটির আন্তরিক অনুরোধে। ভাগ্যিস তাদের ডাকে সাড়া দিয়েছিলাম! এজন‌্য এই ‘ইতিহাস’ জন্ম নিলো।’

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী
শিরোনামঃ