Home > বিনোদন > চলচ্চিত্র পাড়ায় বিতর্কিত যত ঘটনা

চলচ্চিত্র পাড়ায় বিতর্কিত যত ঘটনা

রাহাত সাইফুল : কয়েক দিন পরই নতুন বছরে পা দিবে ঢাকাই চলচ্চিত্র। চলতি বছর এই অঙ্গনে বেশ কিছু ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে বিতর্কিত ঘটনাই বেশি। যা নিয়ে অনেক আলোচনা হয়েছে। বছরজুড়ে ঘটে যাওয়া এমন নানা ঘটনা নিয়ে সাজানো হয়েছে এই প্রতিবেদন।

শাকিব-অপুর বিবাহবিচ্ছেদ
জনপ্রিয় তারকা দম্পতি শাকিব খান-অপু বিশ্বাস। দীর্ঘ একবছর ধরে এই দম্পতির দ্বন্দ্ব যেন পিছু ছাড়ছে না। চলতি বছরের শুরুর দিকে অপু বিশ্বাসকে শাকিব খান ডিভোর্সের চিঠি পাঠায়। এ ঘটনার পর ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে একাধিক সালিশি বৈঠকের আয়োজন করা হয়। এতে শাকিব-অপুকে উপস্থিত থাকার জন্য বলা হয়। কিন্তু একবারও শাকিব খান উপস্থিত হননি। অন্যদিকে অপু বলে আসছেন-ডিভোর্স লেটারে যে স্বাক্ষর আছে তা শাকিব খানের নয়। এসবের মধ্য দিয়েই সর্বশেষ তাদের বিবাহবিচ্ছেদ ঘটে।

জাজের সিনেমা প্রযোজনা না করার ঘোষণা
বছরের শুরুতে চলচ্চিত্রের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে অনেকটা অভিমান করেই চলচ্চিত্র প্রযোজনা না করার ঘোষণা দেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ। সংবাদমাধ্যমে তার এই ঘোষণায় চলচ্চিত্রের অনেকেই হতাশ হয়েছিলেন। যদিও সব ভুলে আবারো নিয়মিত চলচ্চিত্র প্রযোজনা করছেন তিনি।

চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে জালিয়াতির অভিযোগ
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬ এর গেজেট প্রকাশের পর জানা যায়, ‘নিয়তি’ সিনেমার নৃত্য পরিচালক হিসেবে হাবিবকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। কিন্তু হাবিব বলেন, ‘এই সিনেমায় আমি কাজ করিনি।’ এর পরই এ পুরস্কার নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠে। এ নিয়ে চলচ্চিত্রের ১৮টি সংগঠনের সমন্নয়ে গঠিত চলচ্চিত্র পরিবার গত ২১ এপ্রিল বিএফডিসির চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে সংবাদ সম্মেলন করে। এ সময় চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে জালিয়াতির সঙ্গে জড়িতদের বিচারের দাবি জানানো হয়। পরবর্তীতে এই বিভাগে কাউকে পুরস্কার দেওয়া হয়নি।

‘দেবী’ উপন্যাসের অনুমতি নিয়ে বিতর্ক
তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী জয়া আহসান। নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ‘দেবী’ উপন্যাস অবলম্বনে ‘দেবী’ সিনেমা নির্মিত হয়। অভিনয়ের পাশাপাশি এটি প্রযোজনাও করেন তিনি। এর নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার পর অনুমতির বিষয়ে প্রশ্ন তুলেন হুমায়ূন কন্যা শীলা আহমেদ। এর পরই শুরু হয় সমালোচনা। শুধু শীলা নন, এ নিয়ে প্রশ্ন তুলেন হুমায়ূনপূত্র নুহাশও। যদিও পরবর্তীতে আলোচনার মাধ্যমে এ বিতর্কের অবসান ঘটান জয়া।

‘ধর্ষণ’ নিয়ে পূর্ণিমা-মিশার ঠাট্টা
চিত্রনায়িকা পূর্ণিমার উপস্থাপনায় ‘এবং পূর্ণিমা’ সেলিব্রেটি শোতে ধর্ষণ নিয়ে প্রশ্ন করেন খল অভিনেতা মিশা সওদাগরকে। অনুষ্ঠানে পূর্ণিমা মিশাকে প্রশ্ন করেন ‘কার সঙ্গে ধর্ষণ দৃশ্যে অভিনয় করতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন? উত্তরে মিশা সওদাগর জানান, মৌসুমী ও পূর্ণিমার সঙ্গে। এমন উত্তরে উপস্থাপিকা পূর্ণিমা হেসে ওঠেন। এছাড়াও মৌসুমীকে জড়িয়ে কিছু কথা বলেন মিশা সওদাগর। তারপর এই প্রশ্ন নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনা শুরু হয়। বিষয়টি নিয়ে মর্মাহত হন চিত্রনায়িকা মৌসুমী ও ওমর সানি। প্রতিবাদ জানিয়ে, গত ৭ এপ্রিল ওমর সানি তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি স্ট্যাটাসও দেন।

শাকিব খানের ‘ভাইজান এলো রে’ নিয়ে বিতর্ক
‘ভাইজান এলো রে’ সিনেমার কাজ করার জন্য গত ৬ মে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে অনুমতি চান জয়দীপ মুখার্জি। জয়দীপ মুখার্জি পরিচালিত এ সিনেমা প্রযোজনা করেন এসকে মুভিজ। এতে শাকিব খান, শ্রাবন্তী ও পায়েল সরকার অভিনয় করবেন বলে আবেদন পত্রে উল্লেখ করা হয়। এমন আবেদন পেয়ে নড়েচড়ে বসে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। কারণ তারা সংবাদমাধ্যমে সূত্রে জানতে পারে, এই নির্মাতা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান একই শিল্পী নিয়ে সিনেমাটির নির্মাণ কাজ শেষ করেছেন। সিনেমা নির্মাণ শেষে কীভাবে কাজ শুরু করার অনুমতি চান তা নিয়ে শুরু সমালোচনা। সর্বশেষ অনুমতি না পেয়ে সাফটা চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশে মুক্তি দেওয়া হয় সিনেমাটি।

ঈদ-উৎসবে আমদানি সিনেমা নিষিদ্ধ
ঢাকার প্রেক্ষাগৃহে গত কয়েক বছর ধরে দেশীয় সিনেমার পাশাপাশি বড় বাজেটের যৌথ প্রযোজনার সিনেমা ঈদসহ বিভিন্ন উৎসবে মুক্তি পেয়ে আসছে। ঈদুল ফিতরেও শাকিব খান অভিনীত ‘ভাইজান এলো রে’ ও জিৎ অভিনীত ‘সুলতান’ নামের দুটি সিনেমা সাফটা চুক্তির মাধ্যমে বাংলাদেশে মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়। এর বিরুদ্ধে আন্দোলনের হুমকি দেয় চলচ্চিত্র পরিবারসহ সংশ্লিষ্টরা। গত ৯ মে নিপা এন্টারপ্রাইজের পক্ষে প্রযোজক সেলিনা বেগম আদালতে বিদেশি সিনেমা বাংলাদেশের বিশেষ দিবসগুলোতে প্রদর্শনের স্থগিত চেয়ে রিট আবেদন করেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি সালমা মাসুদ ও এ কে এম জহিরুল হক আদেশ দেন-এখন থেকে ঈদ, পয়লা বৈশাখসহ দেশের বিভিন্ন উৎসবে দেশের প্রেক্ষাগৃহে যৌথ প্রযোজনা কিংবা আমদানি করা কোনো সিনেমা মুক্তি দেওয়া যাবে না।

সাইমন-বাপ্পির ভুল বোঝাবুঝি
ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ সময়ের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক ও বাপ্পি চৌধুরী। একটি টকশোতে বাপ্পি সাইমনকে ‘ভিলেন’ অভিনেতা বলে মন্তব্য করেন। বিষয়টি নিয়ে ক্ষিপ্ত হন সাইমনসহ তার ভক্তরা। কিন্তু বাপ্পি বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, তিনি ‘ভিলেন’ চরিত্রে ভালো অভিনয় করেন বলে ‘ভিলেন’ অভিনেতা বলেছেন।

পৃথক আয়োজনে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস পালন
চলচ্চিত্র স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটি ও বিএফডিসি পৃথক আয়োজনে পালন করে জাতীয় চলচ্চিত্র দিবস। গত ছয় বছর এই দিবসটি অত্যন্ত সফলভাবে পালিত হয়ে আসছে। তবে এবারই প্রথম দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে চলচ্চিত্র দিবস পালন করা হয়। সৈয়দ হাসান ইমামকে চলচ্চিত্র দিবস উদযাপন কমিটির চেয়ারম্যান না করায় ক্ষিপ্ত হয়ে দুই ভাগে বিভক্ত হয় বলে জানা যায়। তবে শেষ পর্যন্ত সৈয়দ হাসান ইমামকে চেয়ারম্যান করা হলেও দ্বন্দ্বের অবসান ঘটেনি।

সিনেমা ছিনতাইয়ের অভিযোগ
প্রযোজক সিনেমা নির্মাণ না করেই নির্মাতা হিসেবে নিজের নাম দেওয়ার মতো ঘটনা প্রায়ই ঘটে। এছাড়া প্রায়ই শোনা যায়, সিনেমার পরিচালক পরিবর্তন, শিল্পী পরিবর্তন, গল্প চুরিসহ নানা বিষয় নিয়ে জটিলতা। ‘নোলক’ সিনেমাটি ছিনতাইয়ের অভিযোগ করেন এর পরিচালক রাশেদ রাহা। তাকে ছাড়াই ভারতে গিয়ে সিনেমাটির শেষ অংশের শুটিং করা হয়। এ নিয়ে পরিচালক সমিতি ও প্রযোজক সমিতিতে অভিযোগ করেন তিনি।

তথ্য সূত্র : রাইজিংবিডি

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ