Home > বিনোদন > জয় ভিডিও প্রকাশ করার পরেই আমি স্ট্যাটাস দিয়েছি: ওমর সানী

জয় ভিডিও প্রকাশ করার পরেই আমি স্ট্যাটাস দিয়েছি: ওমর সানী

একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে নিয়মিত প্রচারিত হয় ‘সেন্স অব হিউমার’। অনুষ্ঠানটি পরিকল্পনা, উপস্থাপনা ও পরিচালনা করেন শাহরিয়ার নাজিম জয়। এতে শোবিজ অঙ্গনের তারকাদের পাশাপাশি রাজনৈতিক ব্যক্তিরাও অতিথি হিসেবে আমন্ত্রিত হন।

কিছুদিন আগে এই অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন ওমর সানী-মৌসুমী দম্পতি। সম্প্রতি ওমর সানী প্রশ্ন তুলেছেন অনুষ্ঠানে অতিথিদের ‘আপত্তিকর’ ও ‘অশালীন’ প্রশ্ন করেন উপস্থাপক জয়। এজন্য ওমর সানী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একাধিক স্ট্যাটাস দেন। জয়কে বলেন, প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে। পরবর্তী সময়ে জয় ক্ষমা চান। তবে জয় প্রশ্ন তুলেছেন, ওমর সানী-মৌসুমীর পর্বটি প্রচারের তিন মাস পরে কেন আপত্তি জানালেন তিনি। এ প্রসঙ্গে রাইজিংবিডির সঙ্গে কথা হয় ওমর সানীর। এই আলাপচারিতা পাঠকের উদ্দেশ্যে তুলে ধরা হলো-

রাইজিংবিডি: অনুষ্ঠান প্রচারের তিন মাস পড় কেন বিষয়টি নিয়ে আপত্তি জানালেন?

ওমর সানী: শাবনূরের ঘটনা, শামীম ওসমান সাহেবের ঘটনা, মাহির ঘটনা, মেহের আফরোজ শাওনের ঘটনা কি আমার সামনে ঘটেছিল? এগুলো সবই আলাদা আলাদা পর্ব ছিল। এই পুরো অনুষ্ঠান যখন আমার জীবনে এক হয়ে আসে তখন আমি এটা নিয়ে কথা বলেছি। মৌসুমী ও আমার পর্বটির শুটিং যখন শেষ হয়, তখন সঙ্গে সঙ্গে জয়কে বলি, তুমি এই ধরনের বেয়াদবি প্রশ্ন কেন করো? এসব প্রশ্ন কিন্তু আমার ভালো লাগেনি। তখন জয় বলে, না ভাইয়া এটা মজা করার জন্য বলেছি। আপনার তাড়া আছে তাড়াতাড়ি চলে যান। আমারো বাসায় কাজ ছিল, শরীরটাও ভালো ছিল না। তাই সেদিন আর কিছু না বলে আমি চলে আসি।

রাইজিংবিডি: ‘আপত্তিকর’ দৃশ্যগুলো কি বাদ দিতে বলেছিলেন?

ওমর সানী: জয় অনস্ক্রিনে এ ধরনের প্রশ্ন করবে এ জন্য প্রস্তুত ছিলাম না। জয়কে তখন আমি আপত্তি জানিয়ে বলেছিলাম, প্রশ্নগুলো আমার ভালো লাগেনি। যদি পারো বাদ দিয়ে দিও। জয় তখন বলেছিল, ঠিক আছে, আমি বিষয়টি দেখব। কিন্তু পরে দেখা গেল সে প্রশ্নগুলো বাদ দেয়নি।

আসলে জয়কে আমি খুব স্নেহ করি। ও আমার অনেক আদরের। মৌসুমীকে যখন বিয়ে করি তার আগে থেকেই জয় মৌসুমীদের বাসায় যাতায়াত করত। জয়কে মিডিয়াতে আনার পেছনে মৌসুমীর অনেক বড় অবদান আছে। জয়ও এ কথা স্বীকার করে। ওকে আমি শ্যালক হিসেবে জানি। ও আমাকে দুলাভাই, বড় ভাই বলে ডাকে। কিন্তু কী কারণে জয় এ ধরনের প্রশ্ন করতে শুরু করল আমার বোধগম্য নয়। যা বলেছি, ওকে শাসন করার জন্য বলেছি। ওকে ঘৃণা করে বলিনি। সেন্স অব হিউমার বন্ধ করার জন্যও বলিনি। আমি জাস্ট বলেছি, বাংলাদেশের প্রেক্ষাপট চিন্তা করে অনুষ্ঠান করো।

রাইজিংবিডি: কিন্তু এই অনুষ্ঠানের ধরনই তো এমন…

ওমর সানী: আমাদের দেশে মুসলিম, হিন্দু, খ্রিস্টান, বৌদ্ধসহ সব ধর্মাবলম্বী মানুষ বাস করেন। তবে দেশটি মুসলিম সংখ্যাগড়িষ্ট। আমাদের যে সংস্কৃতি, আমাদের যে সামাজিক অবস্থান সেখান থেকে কিছু কিছু প্রশ্ন আমরা নিতে পারি না। জয় সেন্স অব হিউমার অনুষ্ঠান করবে দ্যাটস গুড। ও শিল্পী আমিও শিল্পী। আমি ওর অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য মৌসুমী, শাবনূরকে বলেছি। শাবনূর আমার বাসায় এসেও জিজ্ঞাসা করেছিল, জয়ের অনুষ্ঠানে যাবে কিনা? আমি শাবনূরকে বলেছিলাম, হ্যাঁ তুই অনুষ্ঠানে যা। কিন্তু পরবর্তীতে পুরো অনুষ্ঠান দেখে আমার মনে হয়েছে, জয় ঠিক করছে না। কারণ এটা অনেক দূর পর্যন্ত গড়াবে।

রাইজিংবিডি: আপনাকে নিয়ে এটিএম শামসুজ্জামানের মন্তব্যের একটি ভিডিও জয় প্রকাশ করেছে বলে শোনা যায়…

ওমর সানী: এটিএম শামসুজ্জামান সাহেব যে ভিডিওতে আমাকে ‘স্টুপিড’ বলেছিলেন, ওই ভিডিওতে দেখবেন তার হাতে একটা কাটাচামচ ছিল। আমরা আড্ডার সময় অনেক কথাই বলে থাকি। এটিএম সাহেবও অফ দ্য রেকর্ডে খেতে খেতে কথায় কথায় আমাকে কথাটি বলেছিলেন। তখন পাশ থেকে কেউ একজন এই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করেছিল। যাই হোক, আমি কিন্তু এটিএম সাহেবের কথাটি আশীর্বাদ হিসেবেই নিয়েছি। কারণ তিনি মিডিয়াতে আমার অনেক উপকার করেছেন। এটিএম সাহেব যদি আমাকে একটা চড়ও মারেন, আমার আপত্তি নেই। কারণ তাকে আমি বাবার মতো দেখি। কিন্তু ওই ভিডিও জয় প্রকাশ করেছে। এটা জয় ঠিক করেনি। ওই ভিডিওটি জয় প্রকাশ করার পরেই মূলত আমি পাঁচটি পয়েন্ট বের করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছি। না হলে আমি দিতাম না। জয় এই কাজটি কেন করল আমার বোধগম্য নয়।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ