Home > তথ্য ও প্রযুক্তি > আদালতের রায়ে সুইডেনে ৫জি নিয়ে হুয়াওয়ের আশার আলো

আদালতের রায়ে সুইডেনে ৫জি নিয়ে হুয়াওয়ের আশার আলো

সুইডেনের একটি আদালত দেশটির ৫জি নেটওয়ার্কে হুয়াওয়ের যন্ত্রাংশ ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে। চীনা টেলিকম জায়ান্ট হুয়াওয়ের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা বিবেচনায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

স্টকহোম প্রশাসনিক আদালতের এই সিদ্ধান্তের কারণে গত সোমবার সুইডেনের ডাক ও টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষ (পিটিএস) জানায়, তারা মঙ্গলবারের ৫জি নেটওয়ার্কের নিলাম স্থগিত করেছে।

জাতীয় নিরাপত্তা ঝুঁকির দাবি জানিয়ে হুয়াওয়ের যন্ত্রাংশ ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দেয় সুইডেন৷ তবে, হুয়াওয়ের দাবি এটি ‘আইনগতভাবে ভিত্তিহীন, মৌলিক মানবাধিকারের লঙ্ঘন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের মৌলিক আইনগত নীতিমালার লঙ্ঘন…. তাই সুইডেনের এ নিরাপত্তা ঝুঁকির দাবি বিষয়গতভাবে দুর্বল।’

পিটিএস জানায়, তাদের গত ২০ অক্টোবরের নিষেধাজ্ঞাটি (যা চীনা প্রতিষ্ঠান জেডটিইকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে) নতুন আইনের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ ‘যা নিশ্চিত করে যে, (৫জি নেটওয়ার্ক) এ ব্যান্ডগুলোতে রেডিও সরঞ্জামের ব্যবহার সুইডেনের নিরাপত্তায় কোনোরূপ প্রভাব ফেলবে না।’

আদালত পিটিএসকে তাদের যুক্তিগুলো জমা দেয়ার নির্দেশ দেন, যাতে করে তারা এ মামলাটির গুরুত্ব বিবেচনা করে সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, মঙ্গলবার থেকে শুরু হতে যাওয়া নিলাম থেকে নকিয়া এবং এরিকসন উপকৃত হতো, কারণ নিলামে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলোকে ২০২৫ সালের ১ জানুয়ারির মধ্যে তাদের অবকাঠামো থেকে হুয়াওয়ে এবং জেডটিইর সরঞ্জাম অপসারণের জন্য বলা হয়েছিল।

আদালতের পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত পিটিএস-এর সিদ্ধান্তের নির্দিষ্ট কিছু অংশ কার্যকর হবে না। স্টকহোমের প্রশাসনিক আদালতের এই সিদ্ধান্তের কারণে সুইডেনের ৫জি নেটওয়ার্কের নিলামে অংশ নেওয়ার অনুমোদন পেতে পারে হুয়াওয়ে।

এই খাতের পরামর্শক জন স্ট্র‍্যান্ড বলছেন, ‘এটা হুয়াওয়ের বিজয় নয় এবং সুইডিশ সরকারের কোনো ক্ষতি নয়। নিলামের শর্ত নিয়ে অনিশ্চয়তার কারণেই পিটিএস নিলামে লাগাম টেনেছে।’

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ