Home > তথ্য ও প্রযুক্তি > হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট সুরক্ষার ৪ উপায়

হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট সুরক্ষার ৪ উপায়

২০০ কোটির বেশি সক্রিয় ব্যবহারকারী নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ নিঃসন্দেহে বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় অ্যাপ। ফলে স্বাভাবিকভাবেই এটি হ্যাকারদের লক্ষ্যবস্তুতে রয়েছে। নানা কূটকৌশলের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট হ্যাকের চেষ্টায় সদা তৎপর থাকে হ্যাকাররা।

তবে সাইবার অপরাধীদের কবল থেকে সুরক্ষার জন্য হোয়াটঅ্যাপে নানা ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থাও রয়েছে। হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের মতে, ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা এবং সুরক্ষাকে তারা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে থাকে। এজন্য এন্ড-টু-এন্ড নিরাপত্তা প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে অ্যাপটিতে। ফলে চ্যাট করার সময় প্রেরক এবং প্রাপক ব্যতীত তৃতীয় পক্ষের কেউ নজরদারি কিংবা হ্যাক করতে পারে না। মেসেজ, ফটো, ভিডিও, ভয়েস মেসেজ, ডকুমেন্ট এবং স্ট্যাটাস থাকে নিরাপদ।

যা হোক, হ্যাকারদের হাত থেকে আপনার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট রক্ষা করার জন্য সহজ ৪টি উপায় মেনে চলতে পারেন।

টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন চালু রাখুন: টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন একটি অপশনাল ফিচার, যা আপনার অ্যাকাউন্টে বাড়তি সুরক্ষা যুক্ত করবে। এই ফিচারটি চালু থাকলে অ্যাকাউন্ট ভেরিফাইয়ের জন্য ৬ অক্ষরের পিন নম্বরের প্রয়োজন হয়। এ কারণে অন্য কেউ তাদের ডিভাইসে আপনার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে পারবে না।

ফিচারটি চালু করার জন্য হোয়াটসঅ্যাপের সেটিংস অপশনে যান। এরপর অ্যাকাউন্ট অপশন ক্লিক করুন। এবার টু-স্টেপ ভেরিফিকেশন অপশনটিতে ক্লিক করে ফিচারটি সক্রিয় করুন।

হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষের পরামর্শ হচ্ছে, টু-স্টেপ ভেরিফিকেশনের ৬ ডিজিটের কোডটি কখনোই কারো সঙ্গে শেয়ার করবেন না। এমনকি আপনার বিশ্বস্ত কোনো ব্যক্তি বা সংস্থার সঙ্গেও নয়।

ফেসলক ব্যবহার করুন: আইওএস ৯ বা আরো আপডেটেড আইওএস চালিত আইফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে থাকলে টাচ আইডি অথবা ফেস আইডি ফিচার ব্যবহার করতে পারেন। এই নিরাপত্তা ফিচারটি ফোনে সক্রিয় করলে হোয়াটসঅ্যাপ আনলক করার জন্য টাচ আইডি বা ফেস আইডির প্রয়োজন হবে। হোয়াটসঅ্যাপ লক থাকা অবস্থায় আপনি কল রিসিভ এবং নোটিফিকেশন থেকে মেসেজের রিপ্লে দিতে পারবেন।

টাচ আইডি বা ফেস আইডি ফিচার চালু করার জন্য হোয়াটসঅ্যাপের সেটিংস অপশনে যান। এরপর অ্যাকাউন্ট অপশন ক্লিক করুন। এবার প্রাইভেসি অপশনে ক্লিক করুন। এরপর স্ক্রিন লক থেকে ফিচারটি সক্রিয় করুন।

ক্লাউড ব্যাকআপ অপশন বন্ধ রাখুন: ফোন হারিয়ে গেলে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্টের মেসেজ, ছবি, অডিও, ভিডিও ফিরে পাওয়ার জন্য ক্লাউড ব্যাকআপ অপশনটি গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু এক্ষেত্রে নিরাপত্তা ঝুঁকিও রয়েছে। কেননা হোয়াটসঅ্যাপ নিজে এন্ড-টু এন্ড নিরাপত্তা প্রযুক্তির হলেও, ক্লাউডে ব্যাকআপ রাখা কনটেন্টগুলো এন্ড-টু এন্ড নিরাপত্তা প্রযুক্তি দ্বারা সুরক্ষিত নয়। ফলে আপনার অসাবধানতায় গুগল ড্রাইভে বা আই ক্লাউডে ব্যাকআপ রাখা গোপনীয় মেসেজগুলো হ্যাকারের খপ্পরে পড়তে পারে। এছাড়া আইন প্রয়োগকারী সংস্থা আপনার ব্যাকআপ করা চ্যাটে অ্যাকসেসের জন্য গুগল বা অ্যাপলকে জিজ্ঞাসা করতে পারে।

ক্লাউড ব্যাকআপ অপশনটি বন্ধ করার জন্য হোয়াটসঅ্যাপের সেটিংস অপশনে যান। এরপর চ্যাট অপশন ক্লিক করুন। এবার চ্যাট ব্যাকআপ অপশনে ক্লিক করুন। এরপর অটো ব্যাকআপ অফ করে দিন।

রিড রিসিপট অপশন বন্ধ রাখুন: হোয়াটসঅ্যাপে গোপনীয় রক্ষার একটি ভালো উপায় হতে পারে রিড রিসিপট অপশনটি বন্ধ রাখা। এটি বন্ধ রাখার জন্য সেটিংস অপশনে যান। এরপর অ্যাকাউন্ট অপশন ক্লিক করুন। এবার প্রাইভেসি অপশনে ক্লিক করুন। এরপর রিড রিসিপট অপশনটি নিষ্ক্রিয় করে দিন। তবে গ্রুপ চ্যাট কিংবা ভয়েস মেসেজের জন্য এই অপশনটি বন্ধ রাখার কোনো উপায় নেই।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ