সাশ্রয়ী দামে প্রিন্টার নিয়ে আসছে ওয়ালটন

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড বাজারে নিয়ে আসছে নতুন ক্যাটাগরির পণ্য প্রিন্টার। ‘প্রিন্টন’ প্যাকেজিংয়ে প্রাথমিকভাবে ২টি মডেলের লেজার প্রিন্টার গ্রাহকদের জন্য ছাড়বে ওয়ালটন। অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ওয়ালটন প্রিন্টারে রয়েছে দ্রুতগতির ওয়্যারলেস প্রিন্টিংসহ বিভিন্ন সুবিধা।

জানা গেছে, ওয়ালটনের নতুন প্রিন্টার দুটির মডেল প্রিন্টন পিএমএফ২২ (Printon PMF22) এবং প্রিন্টন পিএস২২ (Printon PS22)। এর মধ্যে পিএমএফ২২ মডেলটি মাল্টি ফাংশন সুবিধাযুক্ত। অর্থাৎ প্রিন্টের পাশাপাশি স্ক্যান এবং ফটোকপি করা যাবে। এর মূল্য ১৬,৭৫০ টাকা। পিএস২২ মডেলটি সিঙ্গেল ফাংশনের। এতে প্রিন্ট করা যাবে। এই প্রিন্টারটির দাম ১১,৭৫০ টাকা।

ওয়ালটনের প্রিন্টারের প্রধান বিশেষত্ব হচ্ছে, ২২ (এ ফোর) এবং ২৩ (লেটার) পিপিএম প্রিন্ট স্পিড। অর্থাৎ অত্যন্ত দ্রুত প্রয়োজনীয় সকল ডকুমেন্ট প্রিন্ট করে। এছাড়া উভয় মডেলেই ১২০০ x ১২০০ ডিপিআই রেজুলেশন, ৬০০ মেগাহার্জ প্রসেসর এবং ১২৮ মেগাবাইট মেমোরি রয়েছে। এই প্রিন্টার দুটিতে ইউএসবি ক্যাবল সংযোগের মাধ্যমে প্রিন্ট করা ছাড়াও ওয়্যারলেস প্রিন্টিং এর সুবিধা রয়েছে। এছাড়া মাল্টি ফাংশন প্রিন্টারটিতে নেটওয়ার্ক প্রিন্টিং এর সুবিধা রয়েছে; যা কর্মক্ষেত্রে ব্যবহারকারীদের বিশেষ সুবিধা দেবে।

ওয়ালটন প্রিন্টারের প্রোজেক্ট ম্যানেজার মো. শাহিদুজ্জামান বলেন, ‘আমাদের প্রিন্টারে ‘ওয়ান-স্টেপ ইনস্টলেশন’ অপশন দেয়া হয়েছে যার দ্বারা মাত্র এক ক্লিকেই খুব সহজে এর ড্রাইভার পিসিতে ইনস্টল করা যাবে। এই ডিভাইসের প্রতিযোগিতামূলক দাম এবং ফিচার সবার জন্য প্রিন্টার ব্যবহার আরও সহজতর এবং সাশ্রয়ী করতে সক্ষম হবে।’

বিভিন্ন মোডে বিভিন্ন সাইজের কাগজ প্রিন্ট করার সুবিধা থাকায় প্রিন্টারগুলো সব শ্রেণীর গ্রাহকদের জন্য বেশ সহায়ক হবে বলে মনে করেন ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের কম্পিউটার এবং আইটি অ্যাকসেসরিজের প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মো. তৌহিদুর রহমান রাদ। তার মতে, ওয়ালটনের প্রিন্টারগুলো কর্পোরেট অফিস, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমনকি ব্যক্তিগত ব্যবহারের জন্য দারুণ নির্ভরযোগ্য।

ওয়ালটন ডিজি-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. লিয়াকত আলী বলেন, ‘করোনা মহামারিতে শিক্ষাকার্যক্রম ঘরের মধ্যে সীমাবদ্ধ হয়ে যাওয়ায় শিক্ষার্থীরা প্রিন্ট করা, কপি করার কাজে বাইরে যেতে পারেনি। অনেক কর্মকর্তাও ওয়ার্ক ফ্রম হোমে থাকায় এই সমস্যাটির সম্মুখীন হয়েছে। বাজারে থাকা মাল্টিফাংশনাল প্রিন্টারগুলোর মূল্য বেশ চড়া হওয়ায় চাইলেই গ্রাহকরা প্রিন্টার কিনে নিতে পারেনি। আমাদের পণ্য গ্রাহকদের চাহিদা এবং প্রয়োজনীয়তাকে প্রাধান্য দিয়েই ডেভেলপ করা হয়। আমাদের পণ্যে গ্রাহকরা আস্থা রাখতে পারবেন। আর্থিকভাবেও সাশ্রয়ী হবেন।’

এছাড়াও প্রিন্টারগুলোয় ব্যবহারের জন্য নির্দিষ্ট মডেলের টোনার বাজারে এনেছে ওয়ালটন। ১,৯৮৫ টাকা মূল্যের টিএন১৬ (TNR16) মডেলের এই টোনারটি ওয়ালটনের ২টি প্রিন্টারেই ব্যবহার উপযোগী। এছাড়াও টোনারের রিফিল ৬৫ গ্রামের কিট পাওয়া যাবে। যার মূল্য মাত্র ৬৫০ টাকা। অর্থাৎ ওয়ালটন প্রিন্টারের গ্রাহকরা দীর্ঘদিন পর্যন্ত ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় টোনার এবং রিফিলও ওয়ালটন শোরুম থেকেই পাবেন।

ওয়ালটনের এই প্রিন্টার দুটিতে থাকছে ১ বছর পর্যন্ত ওয়ারেন্টি সুবিধা।

%d bloggers like this: