Home > সারাদেশ > স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীকে অবাঞ্চিত ঘোষণা, ভোলাহাটে এক যুবকের গ্রেফতার নিয়ে এলাকায় নারী পুরুষের বিক্ষোভ

স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীকে অবাঞ্চিত ঘোষণা, ভোলাহাটে এক যুবকের গ্রেফতার নিয়ে এলাকায় নারী পুরুষের বিক্ষোভ

BHOLAHAT PHOTO NEWS-04-05-2016 ভোলাহাট(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধি: ভোলাহাট সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থীকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে উপজেলা বিএনপি আম ফাউন্ডেশন সংলঘœ  রূপালী ব্যাংকের নিচে বুধবার সংবাদ সম্মেলনে। সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোজ্জামেল হক চুটু লিখিত বক্তব্যে বলেন, ভোলাহাট সদর ইউনিয়নে বিএনপি’র সর্মথক ইয়াজদানী জর্জ  আনারস প্রতীকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে চেয়ারম্যান পদে ভোট করছেন। তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েও নিজেকে বিএনপি’র প্রার্থী দাবী করায় তাকে বিএনপি থেকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হলো বলে ঘোষণা দেন। এ দিকে বিএনপি’র বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী ও সর্মথকদের কোন প্রকার বিভ্রান্তিতে না পড়ে ধানের শীষের পক্ষে কাজ করার আহবান জানান। এ সময় উপজেলা পর্যায়ের বিএনপি’র সিনিয়ার সহ সভাপতি মাহাতাব উদ্দিন, সহ সভাপতি সহকারী অধ্যাপক আমিনুল হক, আনোয়ারুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আল হেলাল, শফিকুল ইসলাম তোতা, আহসান হাবিব, সাংগঠনিক সম্পাদক কাউসারুল ইসলাম রন্জুসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, ইয়াজদানী জর্জ দলের কোন তালিকা ভূক্ত সদস্য নয় তবে সর্মথক। একজন সর্মথককে কেন অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হচ্ছে এমন প্রশ্নে বলেন, তিনি নিজেকে বিএনপি’র প্রার্থী দাবী করায় তাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করো হচ্ছে। এ ব্যাপারে ইয়াজদানী জর্জ বলেন, বিএনপি’র কোন নেতাকর্মী ও সর্মথককে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া অবাঞ্চিত কিংবা বহিস্কারের ক্ষমতা কারো নাই। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষের ভালোবাসা নিয়ে বিএনপি’র বিদ্রোহী হয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী চেয়ারম্যান পদে ইউনিয়নের অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার জন্য এবং জনসেবার লক্ষ্যে ভোটে অংশ গ্রহণ করেছেন বলে জানান।
ছবিক্যাপশনঃ ভোলাহাটে বিএনপি’র সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখছেন উপজেলার সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক চুটু।

BHOLAHAT PHOTO NEWS-04-05-2016-02 ভোলাহাট(চাঁপাইনবাবগঞ্জ)প্রতিনিধি: ভোলাহাটে এক ব্যক্তির গলা কেটে হত্যার অভিযোগে মঙ্গলবার রাতে এক যুবককে পুলিশ গ্রেফতার করায় তাৎক্ষণিক এলাকায় নারী পুরুষ রাস্তায় বেরিয়ে এসে অন্যায় ভাবে গ্রেফতারের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে। এলাকাবাসি জানায়, উপজেলার ঝাউবোনা গ্রামের এবাদত আলীর ছেলে রবিউল আওয়াল(৩০)কে গত ২২এপ্রিল রাতে চরধরমপুর গ্রামের মুন্সিপাড়ার ২হাজার গজ পূর্ব দিকে গলা কেটে কে-বা কারা হত্যার চেষ্টা করলে গুরুত্বর আহত অবস্থায় জানে বেঁচে যায়। পরে তাকে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লে এ প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে নিয়ে যায়। রাজশাহী হাসপাতাল থেকে সুস্থ্য হয়ে রবিউল বাড়ী ফিরলে পুলিশকে তার স্বীকারোক্তি দিলে একই গ্রামের মৃতঃ জালাল উদ্দিন ওরফে জালার ছেলে জনি(২৬) ও অপর একজন যুবক এ ঘটনা ঘটিয়েছে বললে পুলিশ মঙ্গলবার রাত প্রায় সাড়ে ৭টার দিকে জনিকে গ্রেফতার করে। ঐ এলাকাবাসি বিষয়টি মিথ্যা বানোয়াট ও ষড়যন্ত্র বলে গ্রামের শতাধীক নারী-পুরুষ রাস্তায় বেরিয়ে পড়ে বিক্ষোভ মিছিল করতে থাকে। তারা বিক্ষোভের সময় প্রকৃত ঘটনা উৎঘাটন করে প্রকৃত দোষী ব্যক্তিকে আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবী করেন। এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সবুর খাঁন জানান, এ ঘটনায় রবিউল আওয়াল নিজে বাদি হয়ে ২জনকে আসামী করে ৩ মে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। যার মামলা নম্বর-০১।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ