Home > সারাদেশ > পাইকগাছায় কন্যার অভিযোগে পিতা আটক

পাইকগাছায় কন্যার অভিযোগে পিতা আটক

খুলনার পাইকগাছায় স্বামী ও দ্বিতীয় স্ত্রী কর্তৃক মারপিটের শিকার হয়েছে প্রথম স্ত্রী ও সন্তানেরা। এ ঘটনায় থানায় মামলা পিতা সিরাজুলকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার বিকালে সোলাদানা ইউনিয়নের বেতবুনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
মামলা সূত্রে জানাযায়, উপজেলার বেতবুনিয়া গ্রামের মজিদ ফকিরের পুত্র সিরাজুল ফকির তার ১ম স্ত্রী রেহানা বেগম (৪০) কে রেখে ৩/৪ মাস পূর্বে রোজিনা নামের একজনকে বিয়ে করে। এরপর প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদেরকে ভরণ পোষণ বন্ধ করে দেয় সিরাজুল। এ অবস্থায় প্রথম স্ত্রী রেহানা তার দুইকন্যা মরিয়ম (২৩) ও চম্পা (১৫) এবং ১পুত্র হাসান (৯) কে নিয়ে অতিকষ্টে এক মানবেতর জীবনযাপন করে আসছে। বিভিন্ন খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে স্বামী সিরাজুল প্রায় তার ১ম স্ত্রী ও সন্তানদের উপর নির্যাতন ও মারপিট করতো। এরই ধারাবাহিকতায় ঘটনার দিন সোমবার বিকালে সিরাজুল আবারও তাদেরকে ধারাল চাকু দিয়ে মারতে উদ্যত হয় এবং বেধড়ক মারপিট করতে থাকে। এতে কন্যা চম্পার মাথায় চাকুর আঘাতে রক্তাক্ত জখম হয়। এ সময় সিরাজুলের পিতা মজিদ ফকির, মা ফরিদা বেগম ও দ্বিতীয় স্ত্রী রোজিনা বেগমও তাদের কে মারপিট করে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সিরাজুল কে আটক করে। এসময় ধারাল চাকুটিও উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় পাইকগাছা থানায় পিতা সিরাজুলকে প্রধান আসামী করে নির্যাতিত কন্যা মরিয়ম (২৩) বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নাং ০৩, তাং ০৪/০৮/২০। এ বিষয়ে পাইকগাছা থানা ওসি এজাজ শফি জানান, মামলার আসামী সিরাজুল কে আটক করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ