Home > সারাদেশ > সড়ক যেনো এখন মৃত্যুফাঁদ: এক দিনেই ঝরে গেল ২৭ প্রাণ

সড়ক যেনো এখন মৃত্যুফাঁদ: এক দিনেই ঝরে গেল ২৭ প্রাণ

নিউজ ডেস্ক
জনতার বানী,
পৃথক পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ঢাকা, টাঙ্গাইল, গাজীপুর, সিলেট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া , মাগুরা ও মুন্সীগঞ্জে শিশুসহ ২৭ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন কমপক্ষে অর্ধ শতাধিক।

বৃহস্পতিবার টাঙ্গাইলের বাঐখোলা, গাজীপুরের ধীরাশ্রম, সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার ব্রাহ্মণশাসনে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার ইসলামাবাদ এলাকায় এবং ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

গাজীপুর : ঢাকা-গাজীপুর রেলপথের ধীরাশ্রম এলাকার বাক্কিনখান এলাকায় একটি রেলক্রসিংয়ে ট্রেনের ধাক্কায় আটজন নিহত হয়েছে। তার মধ্যে ৭ জন একই পরিবারের বলে জানা গছে। বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। তাৎক্ষণিক নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

টঙ্গী রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আলাউদ্দিন এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনার সময় একটি যাত্রীবাহী ইজিবাইক রেললাইন ক্রস করছিল। ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা ডেমু ট্রেনটি ইজিবাইকটিকে ধাক্কা দিলে সেটি রেললাইন থেকে ছিটকে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই ইজিবাইকে থাকা আট যাত্রী নিহত হন। ট্রেনটি দুর্ঘটনাস্থল অতিক্রম করে গন্তব্যে চলে গেছে।

ইনচার্জ জানান, রেলক্রসিংটি অননুমোদিত হওয়ায় কোনো সিগন্যাল বার ছিল না। নিহতদের পরিচয় তাৎক্ষণিক জানা যায়নি। উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে

টাঙ্গাইল : ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের বাসাইল উপজেলায় একটি যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে পানিতে ডুবে যায়। এতে ছয়জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে বাসাইল উপজেলার বাঐখোলা পাটখাগুড়ি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, দুর্ঘটনাকবলিত বিনিময় পরিবহনের বাসটি টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় উদ্ধার কাজ করছে। গোড়াই হাইওয়ে পুলিশের ওসি হুমায়ুন কবির এ দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সিলেট : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সিলেটের ওসমানীনগরের ব্রাহ্মণগাঁওয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে চারজন নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। বাসটি পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় নিখোঁজ রয়েছে দুই যাত্রী। ১০ যাত্রীকে উদ্ধার করে আশপাশের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

হাইওয়ে পুলিশের ওসি নূরুন্নবী বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে সিলেটের দিকে আসা যাত্রীবাহী বাসটি ওসমানীনগর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে পানিতে তলিয়ে যায়। নিহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। নিহতদের মধ্যে দুজন নারী রয়েছেন। পানিতে তলিয়ে যাওয়া বাস উদ্ধারে সিলেট থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল গিয়ে উদ্ধারকাজ শুরু করেছে বলে তিনি জানান।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বাসের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার দুই যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় অটোরিকশার আরও তিন যাত্রী আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার ইসলামাবাদ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের একজনের নাম মো. ইনজামামুল হক (২২)। তার বাড়ি হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুরের ধর্মপুর এলাকায়। অপর হতাহতদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি।

খাঁটিহাতা হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, মাধবপুর থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহী অটোরিকশা সরাইলের ইসলামাবাদ এলাকায় আসলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিলেটগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি বাস সেটিকে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজিটি রাস্তার পাশের খাদে পড়ে ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়।

হাইওয়ে পুলিশ নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

মুন্সীগঞ্জ : এ ছাড়া বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। তবে তাদের পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

মাগুরা: মাগুরা-ফরিদপুর মহাসড়কের কছুন্দী এলাকায় বাসের চাপায় মোটরসাইকেলের দুই আরোহী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার সীতারামপুর গ্রামের একরাম হোসেনের ছেলে শামছুর রহমান শামীম (২৫) ও একই এলাকার গাড়াখোলা গ্রামের কুরবান আলীর ছেলে

image

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ