Home > সারাদেশ > চারঘাট-বাঘায় আগাম আমের মুকুল শোভা ছড়াচ্ছে বাতাসে

চারঘাট-বাঘায় আগাম আমের মুকুল শোভা ছড়াচ্ছে বাতাসে

চারঘাট প্রতিনিধি: আমের রাজধানী হিসেবে পরিচিতি রাজশাহী। আর রাজশাহী মুলত চারঘাট- বাঘার আম নিয়েই রাজশাহী আমের জন্য বিখ্যাত। সেই রাজশাহীর চারঘাট- বাঘায় আগাম দেখা দিয়েছে আমের মুকুল। বেশ কিছু এলাকায় আমের গাছে উকি দিচ্ছে আমের মুকুল। বাতাসে বইছে আমের মুকুলের মৌ মৌ সুবাস। উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এখন শোভা পাচ্ছে আমের মুকুল।

সেই মুকুলের পরিমাণ কম হলেও এর সৌরভ ছড়িয়ে পড়ছে বাতাসে। তবে আর কিছু দিনের মধ্যে গাছেগুলোতে পুরো দমে আসতে শুরু করবে আমের মুকুল। আর সে জন্য আগেই বাগান পরিচর্যায় ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীরা।
বাগান মালিকরা জানান, পৌষের মাঝামাঝিতেই গাছে মুকুল দেখে তারা বুঝছেন আমের মৌসুম এসে যাচ্ছে। তাই মনে আশার প্রদীপ জ্বলে উঠেছে। জোরেশোরে নিচ্ছেন বাগানের পরিচর্যা।

কালূহাটি এলাকার আম চাষী বাহ্ধসঢ়;াদুর রহমান বলেন, আগাম মুকুল দেখা পাওয়ায় মনটা ভালোই লাগছে। তবে এ মুকুল টিকে থাকলে এবার বাম্পার ফলন পাওয়া যাবে। তবে ঘনকুয়াশা দেখা দিলে আমের মুকুল পচে নষ্ট হয়ে যাবার সম্ভাবনা থাকে। এতে আবার ক্ষতির আশঙ্কায় রয়ে যায়। তবে আমের আগাম মুকুলে কৃষকদের মনে আশার প্রদীক জ¦লছে বলে দাবি করেন তিনি।

বাঘার রুস্তুমপুর এলাকার আম ব্যবসায়ী সেলিম রেজা জানান, আগাম গাছে মুকুল ্ধসঢ়;আশায় চাষী ও ব্যবসায়ীরা এখন ব্যস্ত মুকুল পরিচর্যায়। যাতে করে আগাম মুকুলের কোন ধরণের ক্ষতি না হয়। তবে বেশ কিছু গাছে এবার মুকুল আসায় আমের ব্যবসা ভালো হবার লক্ষন বলে মনে করছেন ক্ধেসঢ়;উ কেউ।

আমের মুকুল টিকে গেলে আমে বাম্পার ফলনও হতে পারে বলে ধারনা চাষী ও ব্যবসায়ীদের। আগাম মুকুল দেখে আম চাষিরা অনেকে খুশি হলেও রাজশাহী ফল গবেষণা কেন্দ্রের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আলীম উদ্দিন বলেন, শীত বিদায় নেওয়ার আগেই আমের মুকুল আসা ভালো লক্ষন নয়। এখন ঘন কুয়াশা পড়লে গাছে আগেভাগে আসা মুকুল ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ফলে আম চাষী ও ব্যবসায়ীদের ক্ষতির কারণ হতে পারে। তবে শীত কমে পর্যাপ্ত রৌদ্রের দেখা গেলে ক্ষতি হবার সম্ভাবনা কম থাকে।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামসুল হক বলেন, রাজশাহীতে প্রতি বছরই কিছু আম গাছে আগাম মুকুল আসে। এবারও আসতে শুর্ব করেছে। ঘন কুয়াশার কবলে না পড়লে এসব গাছে আগাম ফলন পাওয়া যায়। আর আবহাওয়া বৈরী হলে ফলন মেলে না। তবে নিয়ম মেনে শেষ মাঘে যেসব গাছে মুকুল আসবে সেসব গাছে মুকুল স্থায়ী হবে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ