Home > সারাদেশ > চাঁপাইনবাবগঞ্জে বন্যার পানি আশংকাজনকভাবে বৃদ্ধি, আতঙ্কে জেলাবাসী

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বন্যার পানি আশংকাজনকভাবে বৃদ্ধি, আতঙ্কে জেলাবাসী

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। জেলায় মহানন্দা নদীর পানি রবিবার বিপদসীমা অতিক্রম করে সকালে বিপদসীমার ৫ সেঃ মিঃ উপরে ২১ দশমিক ৫ মিটারে প্রবাহিত হয়েছে।

গোমস্তাপুর উপজেলায় পূণর্ভবার পানি আরও বেড়ে বিপদসীমার ৬২ সেঃ মিঃ উপরে ২২ দশমিক ৪৪ মিটারে প্রবাহিত হয়েছে। ফলে গোমস্তাপুর উপজেলাসহ জেলার পাঁচটি উপজেলাতেই প্লাবিত ও বন্যাদূর্গত এলাকার পরিমান বেড়েছে। দূর্ভোগ বেড়েছে মানুষের।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী সৈয়দ শহীদুল আলম জানান, তারা ধারণা করছেন, জেলার নদীগুলির পানি আরও বৃদ্ধি পেতে পারে। বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র ২১ আগষ্ট পর্যন্ত পানি বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিলেও আরও ২ থেকে ৩ দিন সামান্য হারে পানি বৃদ্ধির আশংকা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বন্যার পানিতে সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে গোমস্তাপুর ও ভোলাহাট উপজেলা। গোমস্তাপুরের রহনপুর পৌর এলাকাসহ কিছু অঞ্চলসহ ৭টি ইউনিয়নই কম-বেশী বন্যা দূর্গত। কিছু সড়কেও পানি উঠেছে। কিছু পরিবার সড়কে আশ্রয় নিয়েছে। মহানন্দার পানি বৃদ্ধিতে ভোলাহাটের সীমান্তবর্তী নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

উপজেলার ৩টি ইউনিয়নে বন্যার পানি ঢুকেছে। প্রায় ১০০ খানেক পরিবার আশ্রয়কেন্দ্রে ও স্বজনদের বাড়িতে সরে গেছে। জেলার কোথাও কোথাও বৃষ্টির পানি যুক্ত হয়ে সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। বিভিন্ন এলাকায় খাল, বিল, ড্রেন ও স্লুইস গেট দিয়ে বন্যার পানি লোকালয়ে ও ফসলী জমিতে প্রবেশ করছে। জেলা সদর, শিবগঞ্জ ও নাচোল উপজেলায় প্লাবিত এলাকার পরিমান এখন পর্যন্ত তুলনামুলক কম।

এদিকে রবিবার সকাল ১০টা পর্যন্ত এক হিসেবে জেলায় ১২৮০ হেক্টর জমির রোপা আউশ, ২২৯০ হেক্টর জমির রোপা আমন ও ২০৯ হেক্টর জমির সবজিসহ ৩৭৭৯ হেক্টর জমির ফসল পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মঞ্জুরুল হুদা। যার বেশীরভাগই সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে যাবার আশংকা রয়েছে।

সরকারিভাবে এখনও গোমস্তাপুর ও ভোলাহাটে ত্রাণ তৎপরতা শুরু হয়নি।

গোমস্তাপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মৌদুদ আলম খাঁন জানান, সোমবার থেকে ত্রাণ তৎপরতা শুরু করা যাবে।

এদিকে জেলায় পদ্মার পানি বাড়লেও এখনও বিপদসীমার ১০৭ সেঃ মিঃ নীচ দিয়ে ২১ দশমিক ৪৩ মিটারে প্রবাহিত হচ্ছে বলে পানি উন্নয়ন বোর্ড জানিয়েছেন।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ