দুগ্রুপের সংঘর্ষ : ১১ জন কারাগারে

গাইবান্ধা চেম্বার অব কর্মাস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের দুগ্রুপের সংঘর্ষ ও ভাঙচুরের ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় ১১ জনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার বিকেলে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সদর) আদালতের বিচারক মইনুল হাসান ইউসুফ এ আদেশ দেন।

আসামিদের মধ্যে শাহীন, সোহেল, রুবেল, কানন, নাইম, সুজন মিয়া ও সুমনের নাম জানা গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে অন্যদের নাম জানা যায়নি।

গাইবান্ধা কোর্ট ইন্সপেক্টর (জিআরও) এনামুল হক জানান, আজ সংঘর্ষ-ভাঙচুর মামলার ১৭ আসামি আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করেন। বিচারক শুনানি শেষে ছয় আসামির জামিন মঞ্জুর করলেও বাকি ১১ জনের জামিন নামঞ্জুর করেন। তাদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত : অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে ১৩ ডিসেম্বর দুপুরে গাইবান্ধা চেম্বার অব কর্মাস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের দুপক্ষের দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে জেলা ট্রাক, ট্যাংক লড়ি মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোক্তাদুর রহমান মিঠুসহ আটজন আহত হয়। এ সময় শ্যামলী কাউন্টার ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পরদিন ২৩ জনের নাম উল্লেখ ছাড়াও অজ্ঞাত ৪৩ জনকে আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন চেম্বার সদস্য পিয়ারুল ইসলাম। ওই মামলার পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করে। ওই মামলায় এ পর্যন্ত ১৫ জনকে কারাগারে পাঠানো হলো।

%d bloggers like this: