কারামুক্ত মিন্নি

বরগুনা প্রতিনিধি : বরগুনার আলোচিত রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা ওরফে মিন্নি কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে মিন্নিকে মুক্তি দেওয়া হয়। এ সময় তাঁর বাবা মোজাম্মেল হোসেন ও মিন্নির পক্ষের আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে দুপুরে উচ্চ আদালত থেকে মিন্নির জামিন মঞ্জুরের আদেশ বরগুনা জ্যেষ্ঠ বিচারিক আদালতে পৌঁছায়। এরপর মিন্নির পক্ষে মিস কেস দাখিল করেন আইনজীবী মাহবুবুল বারি আসলাম। পরে বিকেল সাড়ে ৩টায় আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম গাজী মিন্নির বাবার জিম্মায় জামিন নামায় বেলবন্ড দেন।

বিকাল ৪টার দিকে বেলবন্ড বরগুনা জেলা কারাগারে পৌঁছায়। কারাগারের প্রক্রিয়া শেষে বিকেল সাড়ে ৪টায় মিন্নিকে কারামুক্ত করে বাবা মোজাম্মেল হোসেনের জিম্মায় দেয়া হয়। এরপর জেলগেটে থাকা একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে মিন্নিকে বাড়িতে নেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে রিফাত শরীফকে কুপিয়ে জখম করে দুর্বৃত্তরা। পরে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। রিফাতকে কোপানোর ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হলে দেশে তোলপাড় শুরু হয়।

এ ঘটনায় ২৭ জুন রিফাতের বাবা আবদুল হালিম শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। মামলায় এজাহারভুক্ত ও জড়িত সন্দেহে ১৫ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। রিফাতের বাবার করা মামলায় মিন্নি ছিলেন প্রধান সাক্ষী।

কিন্তু পরে তিনি এ হত্যাকাণ্ডে পুত্রবধূ জড়িত রয়েছে বলে অভিযোগ করেন। হত্যাকাণ্ডের তিন সপ্তাহ পর গত ১৬ জুলাই মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, রিফাত হত্যা পরিকল্পনায় তার স্ত্রী মিন্নিও জড়িত।

%d bloggers like this: