Home > শিক্ষাঙ্গন > অরক্ষিত ক্যাম্পাস রাবি, যে কোনো সময় দুর্ঘটনা!

অরক্ষিত ক্যাম্পাস রাবি, যে কোনো সময় দুর্ঘটনা!

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শেরে-ই-বাংলা হলের দক্ষিণ পাশের প্রাচীর ধ্বসে যাওয়ার এক মাস অতিবাহিত হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। ফলে ক্যাম্পাসে অনায়াসে বহিরাগত ও দুষ্কৃতিকারীদের যাতায়াত চলছে।

এতে অরক্ষিত হয়ে পড়েছে গোটা ক্যাম্পাস। এমনকি বিভিন্ন টোকাই মাস্তানরা সহজেই হলের ভিতরে প্রবেশ করে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটাতে পারে বলে শঙ্কায় আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীরা।

সরোজমিনে দেখা যায়, গত এক মাস আগে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক সংলগ্ন বিশ্ববিদ্যালয় শেরে-ই-বাংলা আবাসিক হলের পাশে ৮০ ফিট প্রাচীর ধসে যায়। ধসে যাওয়া প্রাচীরের ফাঁকা জায়গা দিয়ে হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ও বহিরাগতরা দিব্যি চলাচল করছে। এ কারণে টোকাই, মাস্তানদের ভয়ে আবাসিক হলের শিক্ষার্থীরা তাদের ব্যবহৃত আসবাবপত্র হলের বারান্দায় রাখার নিশ্চয়তা পাচ্ছেন না। যা শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া বিঘ্নিত করছে। পাশাপাশি নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে ক্যাম্পাস।

এ ব্যাপারে একাধিক শিক্ষার্থী বলেন, দীর্ঘদিন এ প্রাচীর ধসে পড়ে থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নেইনি। উন্মুক্ত রাস্তা দিয়ে যে কোনো লোক প্রবেশ করে অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটালে এর দায়ভার কে বহন করবে?
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান প্রকৌশলী সিরাজুম মুনীর বলেন, আমি বিষয়টি জানি না। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ভালো বলতে পারবেন।

তবে এ বিষয়ে রাবি ভিসি প্রফেসর মোহম্মদ মিজান উদ্দিন বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন কাজ করতে হলে নির্দিষ্ট একটা প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়েই করতে হয়। এর জন্য ভিন্নভাবে টেন্ডার দিতে হয়।
তিনি বলেন, ধসে যাওয়া প্রাচীরের কাজের প্রক্রিয়া চলছে। খুব দ্রুতই প্রাচীর নির্মান করা হবে।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী
শিরোনামঃ