Home > সাহিত্য ও সংস্কৃতি > বাংলা ছড়াসাহিত্যের নব দিগন্তে : ফরহাদ ইলাহী

বাংলা ছড়াসাহিত্যের নব দিগন্তে : ফরহাদ ইলাহী

বাংলা শিশুসাহিত্যের আকাশে মালেক মাহমুদ উজ্জ্বল নক্ষত্রের মতোই। তিনি স্বগৌরবে বিকিরণ করে চলেছেন আপন সৃষ্টি কর্মের তেজস্বী রশ্মি। শিশুসাহিত্যের প্রতিটি শাখায় রয়েছে তার অবাধ ও সুদক্ষ বিচরণ। ইতোমধ্যে তিনি তার নিপুণ কলমের খোঁচায় উপার দিয়েছেন প্রায় অর্ধ শত গ্রন্থ্। তার রচনা নিছক কোনো শব্দ ও ছন্দের কারুকাজ নয় বরং তাতে পাওয়া যায় সমাজ, দেশ, মা মাটি ও মানুষের কথা। পাওয়া যায় সুর ও ছন্দের মন মাতানো ঝঙ্কার ও পুষ্টিরস। তাই তার নতুন কোনো গ্রন্থ পেলে তা সংগ্রহ করে পড়ে ফেলার চেষ্টা করি শত ভাগ। ক’দিন আগে মালেক মাহমুদের চুটকি ছড়ার একটি গ্রন্থ পেলাম। দু-তিনদিনে পড়ে ফেলেছি গ্রন্থটি। এ গ্রন্থটি পড়ে এতোই ভালো লাগল যে, কিছু না লেখে পারলাম না। গ্রন্থটি তিনি ইংরেজি ছড়াসাহিত্য লিমেরিকের আদলে রচনা করলেও নাম দিয়েছেন আমাদের মাটির ভাষা, প্রাণের ভাষা বাংলা ভাষার শব্দে ‘‘চুটকি ছড়া’’। পড়তে বেশ ভালোলাগল। ভালোলাগার মধ্য দিয়েই শেষ হলো পড়া। মনে হলো তিনি নির্বাস রঙিন কাগজের ফুল নয় বরং জন্ম দিয়েছেন সজল কোমল সুবাসী দেশি ফুল। যাতে রয়েছে সুগন্ধ, মন ও মগজের সতেজতা। রয়েছে সত্যের নির্ভিক উপস্থাপন। মালেক মাহমুদের চুটকি ছড়া নিয়ে কথা বলতে গেলে লিমেরিক সম্পর্কে কিছ কথা না বললেই নয়। লিমেরিক হলো ইরেজি হাস্যরসাত্মক ছোট আকারের গীতি কবিতা। লিমেরিক পাঁচ চরণ বিশিষ্ট হয়ে থাকে। এর প্রথম দুটি ও শেষের চরণটি মাঝের দুটি চরণ অপেক্ষা বড় হয়ে থাকে। প্রথম চারটি চরণ হয় পর রপ অন্তমিল বিশিষ্ট। আর পঞ্চম চরণের অন্তমিল থাকে তৃতীয় চরণের সাথে। যেমন: There was an Old Man with a owl, Who continued to brother and howl; He sat on a rail And imbibed bitter ale, Which refreshed that Old Man and his owl. (Edward Lear) মালেক মাহমুদ লিমেরিকের কিছুটা পরিবর্তন ঘটিয়ে পর পর অন্তামিল বিশিষ্ট ছয় চরণে তার চুটকি ছড়া রচনা করেছে। তার রচিত চুটকি ছড়ার প্রথম দুই চরণ ও শেষের দুই চরণ মাঝের দুই চরণের অপেক্ষা আকারে বড়। যেমন : চুপচাপ বসে আছে বউ কথা কয় না বউ আমার পায়নি সোনাদানা গয়না পেয়েছে তো মন নতুন এক ফোন ফোন পেয়ে বউ হাসে নেই থামাথামি হাসিতে হাসিতে বলি বউ বেশি দামি। বউ মনের মতো ফোন পেয়ে মহা খুশিতে আত্মভোলা হয়ে ফোন টিপাটিপিতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছে। ভুলে গেছে সব দায়দায়িত্বের কথা এমন কি প্রিয় স্বামীর আগমনেও বউয়ের চৈতন্য ফিরেনি। তা দেখে স্বামী তো অবাক! ইতোপূর্বে কতো দামি দামি গহনা বউকে দেওয়া হয়েছে তাতে বউয়ের এতো বেশি হৃদয় কাড়তে পারেনি। যে ভাবে নতুন ফোনটি বউয়ের হৃদয় ও চৈতন্য কেড়েছে। এদিকে স্ত্রীর প্রেমের পরশ পেতে স্বামী ব্যকুল। স্বামীর হাতেও আছে নতুন ফোন কিন্তু স্বামীর কাছে তার প্রিয় বউকেই সব চেয়ে দামি মনে হচ্ছে। কবি এদৃশ্যটিকে ছন্দের কারুকাজে চুটকি ছড়ার রূপ দানে উপস্থাপন করেছেন। ঈদের ছুটিতে নাড়ির টানে গ্রামের বাড়িতে ফেরার পথে দৌলদিয়া ঘাটে ভীষণ যানজটে আটকে পড়া খোকনের মনের ব্যকুলতা চুটকিতে উপস্থাপন করতে তিনি লেখেছেন- দৌলদিয়া ফেরিঘাটে আটকে হাজার গাড়ি শহর ছেড়ে আমি খোকন কেমনে যাব বাড়ি? জীবন নদীর বাঁক আছে পথে গরুর ট্রাক আছে ওরাও পথে আটকে আছে হাজার গাড়ির ভিড়ে ঈদের খুশি মাটি হলো ফেরি ঘাটের তীরে। বাংলা সাহিত্যের যশস্বী কবি কাজী নজরুল ইসলাম, অন্নদাশংকর রায়, বুদ্ধদেব বসু, অজিত দত্ত, মানবেন্দ্র, অমিতাভ চৌধুরী, সতহ্যজিত রায়সহ অনেক কবিগণই লিমেরিক সম্রাট এ্যাডওয়ার্ডের মতো পাঁচ চরণের বা পঞ্চপদী বাংলা লিমেরিক রচনা করেছেন। তবে মালেক মাহমুদের লিমেরিক আদলে রচিত ষড়পদী চুটকি ছড়া এর আগে দৃষ্ট হয়নি। এ যেন লিমেরিকের নতুন রূপের চুটকি নামে আবির্ভাব। গ্রন্থটি পড়ে মনে হলো বাংলা ছড়াসাহিত্যের একনতুন দিগন্তে বিচরণ করলাম। ছড়া বাংলা সাহিত্যের আদি ও প্রামিক রূপ হলেও চুটকি ছড়া এই প্রথম বাংলা সাহিত্যে জন্ম নিল মালেক মাহমুদের হাতে। এ গ্রন্থটি রচনার মাধ্যমে মালেক মাহমুদ বাংলা সাহিত্যের এক নব দিগন্তের দ্বার উন্মোচন করলেন।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

শিরোনামঃ